‘রাজনীতির সাথে কুরআনের কোন সম্পর্ক নেই’- কথিত সেক্যুলার মির্জা ফখরুল!

3
621

 

আল্লাহ তা’য়ালা ইসলামকে মানবজাতির জন্য পূর্ণাঙ্গ জীবনবিধানরূপে নির্ধারণ করেছেন। অর্থাৎ, মানবজীবনের এমন কোন দিক নেই যেখানে ইসলামের আদর্শ নেই! মানুষের প্রতিটা কাজ কীভাবে সে করবে তার দিকনির্দেশনা ইসলামে দেওয়া আছে। একজন মুসলিম যেভাবে ব্যক্তিগত ও পারিবারিক জীবনে ইসলাম মেনে চলবে, তেমনি সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় জীবনেও ইসলামের অনুশাসন মেনে চলবে।

কিন্তু, কথিত সেক্যুলারিস্টরা ধর্মকে রাষ্ট্রযন্ত্র থেকে আলাদা করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। যেন রাষ্ট্রীয়ভাবে ইসলামের কোন বিধি-বিধান বাস্তবায়িত না হতে পারে, বিভিন্ন পদক্ষেপও সেজন্য গ্রহণ করেছে। আর, এক্ষেত্রে বাংলাদেশের দুটি বৃহত্তর রাজনৈতিকদল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি একই পথ অনুসরণ করেছে। আওয়ামী লীগ যেভাবে আল্লাহর বিধানগুলোকে বাদ দিয়ে নিজেরা সংবিধান রচনা করেছে, ঠিক তেমনি করেছে বিএনপিও! সামনে ক্ষমতায় যেতে পারলে ইসলামের বিধি-বিধানকে বাদ দিয়ে নতুন আইন রচনার চিন্তাও আছে বিএনপির!  সম্প্রতি বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বিএনপির সেই ইসলামবিরোধী রূপটিই আবারও প্রকাশ করেছে।

মির্জা ফখরুল বলেছে, ‘রাজনীতি মানে রাজনীতি, এর সাথে গিতা, বাইবেল, কুরআনের কোন সম্পর্ক নেই!’

মির্জা ফখরুলের এই বক্তব্যের মাঝে উদ্ভাসিত হয়েছে তার ও বিএনপির রাষ্ট্র থেকে ধর্ম তথা ইসলামকে দূরে রাখার চেতনা। অবশ্য এটাই প্রথমবার নয়, এর আগেও মির্জা ফখরুল বহুবার ইসলামবিরোধী মন্তব্য করেছে। কিছুদিন আগে ‘বিএনপি ইসলামী শরীয়াহ(আইন) চায় না’ বলে জানিয়েছিল মির্জা ফখরুল। এছাড়াও সে ক্ষমতা কুক্ষিগত করতে ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের সাথে সম্পর্ক স্থাপনের কথা বলেছিল। এমনিভাবে বিএনপি তার আসল উদ্দেশ্য জনতার সামনে ঘোষণা করে ফেলেছে। আর তাদের আসল উদ্দেশ্য হলো ক্ষমতা লাভ, এতে কারো লাশ ফেলতে হলে তারা ফেলবে, কাউকে নিঃস্ব করতে হলে করবে, ইসলামকে অবমাননা করতে হলেও করবে, সর্বোপরি ক্ষমতার জন্য তারা যেকোনো কিছু করতেই পিছপা হবে না।

Facebook Comments

3 মন্তব্যসমূহ

  1. কথাটা এক প্রকারের সত্য বলেছে এরা যে জঘন্য নিকৃষ্ট রাজনীতি করে তার সাথে কোরানের বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই এটা এক প্রকারের সত্য প্রকাশ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন