ইসরাইলের পক্ষে ভারতের নজিরবিহীন সমর্থন!

0
153

ফিলিস্তিনী জাতিমুক্তির লড়াইয়ের প্রতি ভারতের ঐতিহাসিক অঙ্গীকার থেকে বের হয়ে এসে ইসরাইলের পক্ষে প্রকাশ্য অবস্থান নিয়েছে ভারতের নরেন্দ্র মোদি। জাতিসংঘে ফিলিস্তিনী সংগঠনের বিপক্ষে ভোট দিয়ে ইসরাইলের ধন্যবাদও পেয়েছে ভারতের প্রধানমন্ত্রী। উল্লেখ্য, মোদির গত সরকারের সময় জাতিসংঘে ইসরাইলের বিরুদ্ধে ভোটাভুটিতে অংশ নেয়া থেকে বিরত ছিল ভারত। তবে এবারই প্রথম ফিলিস্তিনের বিপক্ষে ভোট দিল দেশটি।

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ায় ভারতের অবস্থান খুবই স্পষ্ট এবং ধারবাহিক। দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানই তাদের বৈদেশিক নীতি। এছাড়া বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সম্মেলনে ফিলিস্তিনের সমর্থন আদায়ে সক্রিয় ভূমিকা রেখেছে ভারত। মোদির শাসনামলে এসে ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো গাজার সহিংসতা প্রশ্নে ইসরাইলবিরোধী এক ভোটাভুটিতে অংশ নেয়া থেকে বিরত ছিল ভারত।

আর এবার প্রথমবারের মতো এক ফিলিস্তিনী সংগঠনের পর্যবেক্ষক মর্যাদা কেড়ে নেয়ার ইসরাইলী দাবির পক্ষে ভোট দিয়েছে নরেন্দ্র মোদির দেশ। ৬ জুন জাতিসংঘ ফোরামে লেবাননভিত্তিক ফিলিস্তিনী সংগঠন ‘শাহেদ’ এর পর্যবেক্ষক স্ট্যাটাসের কেড়ে নেয়া প্রস্তাব দেয় ইসরাইল।
‘শাহেদ’ মানবাধিকার নিয়ে কাজ করলেও ইসরাইলের দাবি এটি একটি সন্ত্রাসী সংগঠন। ওই ভোটাভুটিতে ভারত ছাড়াও ইসরাইলকে সমর্থন দেয় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি ও আয়ারল্যান্ডসহ ২৮টি দেশ। জাতিসংঘের ফোরামের ভোটাভুটিতে ইসরাইলের বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় চীন, রাশিয়া, ইরান, তুরস্ক, পাকিস্তান, সুদান, আজারবাইজান, ইয়েমেন, সৌদি আরব, মিসর, বেলারুস, এ্যাঙ্গোলা, মরক্কো এবং ভেনিজুয়েলা।

বিলটি পাস হয় ২৮-১৪ ভোটে। জাতিসংঘের অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিষদে উত্থাপিত প্রস্তাবে সমর্থন দেয়ায় মোদিকে ধন্যবাদ জানিয়েছে ইসরাইলী প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু।

এক টুইট বার্তায় সে বলেছে, জাতিসংঘে ইসরাইলকে সমর্থন দেয়ায় আপনাকে ধন্যবাদ নরেন্দ্র মোদি। ধন্যবাদ ভারতকে। এছাড়া ভারতে নিযুক্ত ইসরাইলী রাষ্ট্রদূত মায়া কাদোস এক টুইটে বলে, উগ্র সংগঠন শাহেদের অনুরোধ উপেক্ষা করে জাতিসংঘে ইসরাইলের পাশে দাঁড়ানোর জন্য ভারতকে ধন্যবাদ। সূত্র: উম্মাহ ডট কম

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন