বৃদ্ধ বাবা-মাকে নেশার টাকা জন্য পিটিয়ে বাড়ি ছাড়া করল ছেলে!

0
206

নেশার টাকা না পেয়ে বৃদ্ধ বাবা-মাকে মারপিট করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে মাদকাসক্ত ছেলে। অসহায় বাবা-মা বাড়ি ছাড়া হয়ে এখন মেয়ে-জামাইয়ের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। ‘কালের কণ্ঠ’ পত্রিকার বরাতে জানা যায়, ঘটনাটি ঘটেছে বগুড়ার শাজাহানপুর উপজেলার গোহাইল ইউনিয়নের কাবাষট্টি গ্রামে।

জানা গেছে, শাজাহানপুর উপজেলার কাবাষট্টি গ্রামের আব্দুল কাদেরের (৬৫) ছেলে জাকারিয়া (২৬) দীর্ঘদিন ধরে মাদকাসক্ত। নেশার টাকার জন্য প্রায়ই বাবা-মাকে মারধর করত। গত বুধবার নেশার টাকা না দেওয়ায় বাবা আব্দুল কাদের ও মা কহিনুর বেগমকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়। অসহায় বাবা-মা বাড়ি ছাড়া হয়ে বর্তমানে বগুড়ার নন্দিগ্রাম উপজেলার রিধইল গ্রামে জামাই আশরাফুল ইসলামের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন।

বাবা আব্দুল কাদের জানান, তার মাদকাসক্ত ছেলে জাকারিয়া প্রায়ই মদ-গাঁজা খেয়ে বাড়িতে এসে মাতলামি করত। নেশার জন্য টাকা চাইত। টাকা না দিলে ঘরের আসবাবপত্র ভাঙচুর করত এবং মেরে ফেলার হুমকি দিত। একপর্যায়ে বুধবার তাদেরকে মারপিট করে বাড়ি থেকে বের দেয়।
ইসলামিক দৃষ্টিকোণ থেকে উলামায়ে কেরামের মতামত হল, সন্তান জন্ম হওয়ার পর থেকে সন্তানের প্রতি পিতা মাতার কিছু হক্ব রয়েছে, যেমন তার সুন্দর নাম রাখা, ফরজ পরিমাণ দ্বীনি এলম শিক্ষা মাধ্যমে তাকে আদব আখলাক ওয়ালা হিসেবে গড়ে তোলা। এমনিভাবে, পিতা মাতার প্রতিও সন্তানের কিছু হক্ব রয়েছে। সেগুলোর মাঝে অন্যতম হল, পিতা মাতারসাথে ভাল ব্যবহার করা। শরিয়তের গণ্ডির ভিতরে থেকে তাঁদের মনে কোন ধরণের কষ্ট না দেওয়া। কিন্তু আফসোসের বিষয় হল, আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় পিতা মাতারা সন্তানদের হক্ব পুরাপুরি ভাবে আদায় করেন না। ফলে সন্তান বড় হয়ে বিভিন্ন অপরাধে লিপ্ত হয়ে পড়ে। এমনকি পিতা মাতাকে কষ্ট দিতেও কোন ভ্রুক্ষেপ করে না।

সূত্র: কালেরে কণ্ঠ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন