বরিশালে মাথাচারা দিয়ে উঠেছে উঠতি কিশোর গ্যাং!

0
194

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় আকস্মিকভাবে মাথাচারা দিয়ে উঠেছে উঠতি কিশোর গ্যাংয়ের সন্ত্রাসীরা। ফলে হামলার ঘটনা ক্রমেই বৃদ্ধি পেয়েছে। তাদের একের পর এক অপরাধ কর্মকান্ডে চরম বেকায়দায় পরেছেন সাধারণ জনগণ।। এখনই ওইসব কিশোর সন্ত্রাসীদের নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে দেশব্যাপী আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীফের হত্যকান্ডের মতো ভয়াবহ ঘটনার আশঙ্কা করছেন সচেতন নাগরিকরা।

নয়া দিগন্তের সংবাদ সূত্রে জানা যায়, গত দুইদিনে ১০ জন কিশোর সন্ত্রাসীকে ধারালো অস্ত্রসহ আটক করা হয়েছে।

সূত্রমতে আরো জানা যায়, বরিশালের বাকেরগঞ্জ সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রকাশ কুমার মালাকার গত ২৪ জুলাই ওই এলাকার কিশোর গ্যাং বাবু বাহিনীর হামলায় রক্তাক্ত জখম হয়েছে। বাকেরগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক জসিম উদ্দিন বলেন, কলেজ চলাকালীন বহিরাগত কিশোর গ্যাংয়ের প্রধান আশরাফুজ্জামান বাবু ও তার সহযোগিরা দীর্ঘদিন থেকে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে ছাত্রীদের উত্যক্ত করে আসছিল।

২৪ জুলাই বেলা ১১টার দিকে তারা ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে ছাত্রীদের উত্যক্ত করায় চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী মুনসুর তাদের বের হয়ে যেতে বলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বাবু ও তার সহযোগিরা মুনসুরকে গালিগালাজ করলে সে (মুনসুর) অফিসে এসে বিষয়টি উপাধ্যক্ষ প্রকাশ কুমার মালাকারকে জানায়। উপাধ্যক্ষ ক্লাস চলাকালীন সময়ে বাবু ও তার সহযোগিদের কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ না করার জন্য নিষেধ করে। এসময় বাবু ও তার সহযোগিরা উপাধ্যক্ষর ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। এ খবর কলেজে ছড়িয়ে পরলে শিক্ষার্থীরা ধাওয়া করলে সন্ত্রাসী বাবু ও তার সহযোগিরা পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা কিশোর গ্যাংয়ের হামলাকারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবিতে বরিশাল-পটুয়াখালী মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।

ধারালো অস্ত্রসহ নয় কিশোর আটক!
বাকেরগঞ্জ উপজেলার গারুড়িয়া ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের উপ-নির্বাচন চলাকালীন ২৫ জুলাই দুপুরে একটি মসজিদের ভেতর থেকে ধারালো অস্ত্রসহ নয়জন কিশোর সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতরা হলো-মেহেদী হোসেন, মাইনুল ইসলাম, মাহাদী হাসান সোয়েব, সাকিব হোসেন, আকাশ হাওলাদার, রুবেল খন্দকার, শিপন হাওলাদার, হাসান আকন ও মৃদুল ইসলাম। যাদের বেশিরভাগই বরিশাল সদরের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা। এর আগে ওইদিন সকালে প্রতিদ্বন্ধী প্রার্থী ফিরোজ আলম রনির চাচাতো ভাই নজরুল ইসলামকে কুপিয়ে জখম করে কিশোর সন্ত্রাসীরা।
এভাবে আমাদের সমাজের নিষ্পাপ কিশোররা কেন এতো ভয়াবহ হয়ে উঠছে? কেন গড়ে উঠছে নানা কিশোর গ্যাং? এগুলোর পিছনে ইসলামি সমাজ বিশ্লেষকগণ ধর্মীয় মূল্যবোধের অবক্ষয় ও অনৈসলামিক সমাজ ব্যবস্থাকেই দায়ী করেছেন।

Facebook Comments

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন