৫০% ভারতীয় পুলিশ মুসলিমদেরকে জন্মগতভাবেই অপরাধী মনে করে!

0
490

সাম্প্রতিক সময়ে একটি এনজিও ভারতীয় মালাউন পুলিশ সদস্যদের কাজের পরিস্থিতি কেমন তা জানার জন্য একটি জরিপ চালায়। জরিপটি ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারক “জে চেলামেশ্বর” প্রকাশ করেছিল। সে জরিপটি ভারতের 31 টি রাজ্যে পরিচালিত হয়েছিল। এই সময়, 12,000 পুলিশ কর্মীর সাথে আলোচনা এবং 11,000 পুলিশ সদস্যের পরিবারের সাথেও আলোচনা করে এনজিওটি।

ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী পুলিশ সদস্যদের উপর চালানো ঐ জরিপে উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর ও ভয়াবহ অনেক তথ্য। বিশেষভাবে যে ভয়ংকর তথ্য ঐ জরিপে উঠে এসেছে তা হলো, মুসলিমদের ব্যাপারে কথিত আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সমাজ সম্পর্কে সচেতন ভারতীয় মালাউন পুলিশের বৈরীতাপূর্ণ ও অন্যায় ধারণা পোষণ। হিন্দুত্ববাদী পুলিশদের মুসলিমদের ব্যাপারে এরূপ মনমানসিকতা খুবই ভয়ানক পরিস্থিতি ডেকে আনতে পারে বলে মনে করেন চিন্তাশীলেরা।

ভারতীয় মালাউন বাহিনীর প্রতি দুই পুলিশ সদস্যের মধ্যে একজন কোনো ধরণের কারণ ছাড়াই মুসলিমদের অপরাধী মনে করে।
মঙ্গলবার “লোকনিটি ও প্রচলিত কারণ” প্রকাশিত প্রতিবেদনে এটি প্রকাশিত হয়েছে। এই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে যে ৩৫ শতাংশ পুলিশ সদস্যই গরু জবাইয়ের ক্ষেত্রে মুসলিমদেরকে হত্যা করা স্বাভাবিক বলে মনে করে।

জরিপের মূল তিনটি বিষয়বস্তু ছিলঃ
ধর্মনিরপেক্ষতার বুলি আওড়ানো ভারতীয় মালাউন ও সেক্যুলার পুলিশের আসল চেহারাটা বেরিয়ে আসে জরিপের মূল তিনটি বিষয়বস্তুতে :

★ভারতীয় মালাউন পুলিশ বাহিনীর ৫০% সদস্যই মনে করে কোন কারণ বা অপরাধ ছাড়াই মুসলিমরা প্রকৃতিগতভাবেই অপরাধী।

★মালাউন বাহিনীর ৩৩% পুলিশ সদস্যই মনে করে যে, গরু জবাইয়ের অভিযোগে মুসলিমদের পিটিয়ে হত্যা করা একটি স্বাভাবিক ব্যাপার।

★এছাড়াও ৫৬% পুলিশ মনে করে যে, ব্রাহ্মণসহ অন্যান্য উচ্চবর্ণের হিন্দুরা কোনো অপরাধই সংঘটিত করে না। তাই তাদের অপরাধগুলোকে তারা অপরাধই মনে করেনা।

এই যখন মুসলিমদের প্রতি উগ্র হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় মালাউন বাহিনীর মনোভাব, তখন সেখানে মুসলিমদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তোলাটা অমূলক কিছু নয়। আজ ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী শাসকগোষ্ঠীর হাতে মুসলিমরা যে নিরাপদ নয়, তার একটি প্রতিচিত্রও উঠে এসেছে উক্ত রিপোর্টে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন