স্বাক্ষর জাল করে টাকা উত্তোলনের চেষ্টায় গ্রেপ্তার দুই পুলিশ কর্মকর্তা

0
299

বাংলাদেশ পুলিশ মানেই যেন দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার। দুটো শব্দ যেন প্রায় সমার্থক। একটির সাথে অন্যটির সখ্যতা বেশ পুরনোই। এবার ঘটল স্বাক্ষর জাল করার ঘটনা। তাও আবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সাথে। কোথায় গিয়ে ঠেকছে দেশ? কাদের কাছে আমরা দিলাম প্রিয় জন্মভূমির জিম্মাদারী এমন প্রশ্নই এখন জনগণের মুখে মুখে।

স্বাক্ষর জাল করে একটি চেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ৩৫ লাখ টাকা তুলে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের দুই কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করেছে রমনা থানার পুলিশ। গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলো- পুলিশের পরিদর্শক মীর আবুল কালাম আজাদ (৫৪) ও সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মোস্তাফিজুর রহমান (৩৮)।

পুলিশ সূত্র জানায়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিরীক্ষা ও হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামের দায়ের করা মামলায় গত বুধবার এ দুজনকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। গত বুধবার রাতে মামলাটি থানায় দায়ের করা হয়।

মামলার অভিযোগ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি চেকে জাল স্বাক্ষর ও তারিখ বসিয়ে টাকা তোলার জন্য গত ২৮ জুলাই সোনালী ব্যাংকের কাকরাইল শাখায় জমা দেয় অভিযুক্ত দুই পুলিশ কর্মকর্তা। পরে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা শফিকুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করলে চেক জালিয়াতির বিষয়টি ধরা পড়ে। হিসাবরক্ষণ কার্যালয় থেকে সোনালী ব্যাংক ও বাংলাদেশ ব্যাংকে ওই চেকটি ছাড় না করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, ঢাকা রেঞ্জের পুলিশের সহায়তায় অভিযুক্ত দুজনকে ধরে রমনা থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় বিলম্বের কারণে মামলা করতেও বিলম্ব হয়েছে। মামলার সঙ্গে ১১ পাতার সংযুক্তি দেওয়া হয়েছে।
সুত্র: প্রথম আলো

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন