মোহাম্মদপুরে মাদ্রাসার একাংশ ভেঙ্গে ফেলা হলো! বাধা দিতে গিয়ে আহত ১ মাদ্রাসা ছাত্র!

1
577

ঢাকার মোহাম্মদপুরে তাজমহল রোড পার্কে ‘অবৈধভাবে’ গড়ে তোলা স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে জামি’আ বাইতুল আমান মিনার মসজিদ ও ইসলামী কেন্দ্র নামের একটি মাদরাসার রান্নাঘর ডিএনসিসির দুজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে গুঁড়িয়ে দিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের উচ্ছেদকর্মীরা। রান্নাঘরটি সিটি কর্পোরেশনের জায়গার ওপর নয় বলে এটা ভাঙতে মাদরাসা কর্তৃপক্ষ অনুরোধ জানালেও উচ্ছেদকর্মীরা এ অনুরোধ উপেক্ষা করে মিনার মসজিদ মাদরাসার আবাসিক ছাত্রদের রান্নাঘর ভেঙে ফেলে।

এতে এলাকাবাসীসহ মাদরাসাছাত্রদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ে। উচ্ছেদকর্মীদের পক্ষ হয়ে ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় সন্ত্রাসবাদী নেতাকর্মীরা এতে অংশগ্রহণ করে। পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠলে দুই পক্ষে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া হয়। এতে এক মাদরাসাছাত্র আহত হন।

নাজমুল ইসলাম নামে এক মাদরাসাছাত্র বলেন, ওই ঘরটি প্রায় ৬০০ ছাত্রের রান্নার কাজে ব্যবহৃত হতো।

‘আমরা বলেছিলাম আমাদেরকে বিকল্প একটি জায়গা দিয়ে ঘরটি ভেঙে দিতে। কিন্তু কোনো বিকল্প ব্যবস্থা না রেখে সেটা ভেঙে দিল। আজ দুপুরে আমাদের রান্না হবে না। আমরা কী খাব জানি না। উল্টো আওয়ামী লীগের ছেলেরা আমাদের দিকে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেছে।’

মসজিদ ও মাদ্রাসা কমিটির সভাপতি মকবুল হোসেন জানান, ওই মাঠের মালিক সিটি করপোরেশন নয়।

তিনি বলেন, ‘আমরা এত বেকুব নই যে সিটি করপোরেশনের মাঠ দখল করে সেখানে মাদ্রাসা বানাব। এটা গণপূর্তের জায়গা, আমরা এটা ১৯৭২ সাল থেকে ব্যবহার করছি। এইটা কমিশনার রতনকে, মেয়র আতিককে বলা হয়েছে। আতিক আমাকে জানিয়েছিল এটা ভাঙা হবে না।’

সূত্র: আল-হুদা নিউজ থেকে সংক্ষেপিত ।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন