ক্রুসেডারদের গোলাম বুরকিনিয়ান বাহিনীর ব্যারাকে আল-কায়েদার হামলা, অগণিত গনিমত লাভ!

1
363

আল-কায়েদা পশ্চিম আফ্রিকান শাখা “জামাআত নুসরাতুল ইসলাম ওয়াল মুসলিমীন” (JNIM) এর জানবায মুজাহিদগণ গত ৩০ জিলহজ্জ ১৪৪০, ৩০ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার বুর্কিনা-ফাসোর “জিবু” শহরের নিকটস্থ বুরকিনিয়ান মুরতাদ বাহিনীর ব্যারাকে একটি সফল বরকতময়ী হামলা পরিচালনা করেছেন, আলহামদুলিল্লাহ।

আল্লাহর অনুগ্রহে আল-কায়েদার জানবায মুজাহিদদের উক্ত সফল হামলার ফলে ক্রুসেডারদের গোলাম বুর্কিনা-ফাসোর মুরতাদ বাহিনীর সদস্যরা উক্ত সামরিক ব্যারাকটি ছেড়ে পলায়ন করে, পরে মুজাহিদগণ উক্ত ব্যারাকটি সম্পূর্ণরুপে ধ্বংস করে দেন এবং মুজাহিদগণ সেখান থেকে বিপুল সংখ্যক অস্ত্র এবং উল্লেখযোগ্য যুদ্ধযান গনিমত লাভ করেন।

মুজাহিদীনের প্রাপ্ত গনিমতের একাংশ।

 

মুজাহিদদের এই সফল হামলার পর আল-কায়েদা পশ্চিম আফ্রিকান শাখার অফিসিয়াল গণমাধ্যম “আয-যাল্লাক্বা” হতে একটা বার্তা প্রকাশ করা হয়।

উক্ত বার্তায় বলা হয়, যখন আফ্রিকার স্বাধীনতাকামী জনগণ বর্বর ফরাসী দখলদার বাহিনীর সন্ত্রাসবাদ থেকে মুক্তি পেতে সংগ্রাম করে যাচ্ছে, ঠিক তখন আফ্রিকা মহাদেশের কিছু সরকার এই মুক্তি স্রোতের বিপরীতে গিয়ে দখলদার ফ্রান্সকে সাহায্য করে চলেছে। এরা আফ্রিকার স্বাধীনতাকামী জনগণের বিরুদ্ধে পরিচালিত ক্রুসেডার ফ্রান্সের ক্রুসেডকে কথিত ‘সন্ত্রাসবাদ বিরোধী’ লড়াই আখ্যা দিয়েছে এবং অত্যান্ত নির্লজ্জভাবে ফ্রান্সের গোলামী করে চলছে। তারা আফ্রিকার জনগণের দ্বীন, ভূমি ও সম্পদ রক্ষার এই জিহাদে লড়াইরত উম্মাহ’র অগ্র সেনানীদের সন্ত্রাসী বলে প্রচার করছে।

ক্রুসেডার ফ্রান্স তাদের পরিকল্পনার অংশ হিসেবে সাহেল অঞ্চলের সেনাবাহিনী গুলোকে সহায়তা করে, যার বিনিময়ে এদেরকে নিজেদের রক্ষা ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে। এর ফলে ক্রুসেডার ফরাসী বাহিনীর উপর চালানো মুজাহিদীনের আক্রমণগুলোর সময় এদেরকে মৃত্যুমুখে পাঠিয়ে ফরাসী সেনারা পেছনে নিরাপদ অবস্থানে থেকে ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পেয়ে যায়।
যার কারণে মুজাহিদগণকে বাধ্য হয়েই এইসব তবেদার বাহিনীর উপর আক্রমণ করতে হয়। অথচ এসব বাহিনীর উচিত ছিল মুসলিমদের উপর নির্যাতনকারী ফরাসী দখলদারদের বিপক্ষে লড়াই করা বা ফরাসী সেনাদের উপর মুজাহিদগণের আক্রমণের সময় অন্তত নিরপেক্ষ থাকা।
কিন্তু এরা কাফেরদের সাহায্যকারী হয়ে নিজেরাই নিজেদের বিপদ ডেকে এনেছে।
আসলে এই সেনাবাহিনীগুলো তৈরীই করা হয়েছে মুনাফিক, দুর্নীতিবাজ ও জালিম প্রশাসন এবং সেনা নেতৃত্বের অন্ধ গোলামীর জন্য।
দুঃখের বিষয় হচ্ছে, এই ধরণের তাবেদার সরকারগুলোর কারণেই দখলদার ফরাসীরা উক্ত অঞ্চলে টিকে রয়েছে, নতুবা বহু আগেই উক্ত ভূমি থেকে ক্রুসেডারদেরকে পলায়ন করতে হতো।

এসব তাবেদার বা গোলাম সরকারের একটি হচ্ছে বুরকিনা-ফাসো সরকার: যাদের উচিত ছিল নিজেদের শক্তি ও সম্পদগুলো নিজ দেশের মজলুম, দারিদ্র পীড়িত ও ক্ষুধার্ত জনগণের কল্যাণে ব্যয় করা, কিন্তু তারা তা না করে ফ্রান্সের গোলামী করে নিজেদের সেনা ও সম্পদ ক্রুসেডারদের পক্ষে ব্যয় করে চলেছে।
এরা লুটেরা ও জালিম ফ্রান্সের পলিটিশিয়ান ও আফ্রিকান জনগণের সম্পদ লুটকারী কোম্পানীগুলোর সন্তুষ্টির জন্য মুজাহিদদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে চলেছে।

আর এ কারণেই বুরকিনিয়ান ফোর্স মুজাহিদীনের হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়েছে। যেমনিভাবে গত ৩০ জিলহাজ্জ ১৪৪০, ৩০ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার মুজাহিদগণ বুর্কিনা-ফাসোর “জিবু” শহরের নিকটস্থ বুরকিনিয়ান মুরতাদ বাহিনীর ব্যারাকে একটি সফল হামলা পরিচালনা করেছেন মুজাহিদগণ।

আল-কায়েদার জানবায মুজাহিদদের উক্ত সফল হামলার ফলে ক্রুসেডারদের গোলাম বুর্কিনা-ফাসোর মুরতাদ বাহিনীর সদস্যরা উক্ত সামরিক ব্যারাকটি ছেড়ে পলায়ন করে, পরে মুজাহিদগণ উক্ত ব্যারাকটি সম্পূর্ণরুপে ধ্বংস করে দেন এবং মুজাহিদগণ সেখান থেকে বিপুল সংখ্যক অস্ত্র ও গোলাবারুদ এবং উল্লেখযোগ্য যুদ্ধযান গনিমত লাভ করেন।

তাই আমরা সাহেল অঞ্চলের সরকারগুলোকে বলবো, যাদেরকে G5 বলা হয়ে থাকে, তারা যেন ক্রুসেডার ফ্রান্সকে দেওয়া নিজেদের সহযোগীতা বন্ধ করে, নিজ জনগণের ইচ্ছা ও প্রয়োজনের প্রতি মনোযোগী হয়। ক্রুসেডার ফ্রান্স এখানে চিরদিন থাকতে পারবে না, আর এরা সাহেল অঞ্চলের সরকারগুলোকে সাহায্য করছে কেবলই নিজেদের প্রয়োজনে। এই ক্রুসেডাররা আমাদের মাতৃভূমিকে ধ্বংস করে দিয়েছে ও জনগণের আকাঙ্ক্ষাগুলোকে হত্যা করেছে।

সবশেষে বলবো এসব সরকারগুলো যেন ক্রুসেডারদের গোলামী ছেড়ে যার যার নিজ দেশের স্বার্থের প্রতি মনোযোগী হয়। আর ক্রুসেডার ফ্রান্স ও মুজাহিদদের মধ্যে চলা এই লড়াইয়ে নিরপেক্ষ থাকে।
“আর আল্লাহ অবশ্যই তাকে সাহায্য করেন, যে তাকে সাহায্য করে। নিশ্চয়ই আল্লাহ শক্তিমান, পরাক্রমশালী”
সূরা হাজ্জ-৪০

“কিন্ত সম্মানতো কেবল আল্লাহ, তাঁর রাসূল ও মু’মিনদের জন্য। কিন্তু মুনাফিকরা তা অনুধাবন করে না।”৷ সূরা মুনাফিকুন-০৮

সকল প্রশংসা উভয় জগতের মালিক মহান আল্লাহ তা’য়ালার।

 

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন