দেশ থেকে অবৈধ ‘এলিয়েন’ তাড়াতে নাগরিক তালিকা খুবই প্রয়োজন-অমিত

0
388

ভারতের আসামের নাগরিক তালিকার মতো সারাদেশে এই কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে বলে জানিয়েছে দেশটির কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং  ক্ষমতাসীন দল বিজেপি সভাপতি গেরুয়া সন্ত্রাসী অমিত শাহ।  এইচটি মিডিয়া গ্রুপ আয়োজিত অনুষ্ঠানে সে এক বক্তব্যে বলেছে, দেশ থেকে অবৈধএলিয়েনতাড়াতে নাগরিক তালিকা খুবই প্রয়োজন

২০১৯ সালের ৩১ আগস্ট প্রকাশিত আসামের চূড়ান্ত নাগরিক তালিকা (এনআরসি) থেকে বাদ পড়েছেন রাজ্যের ১৯ লাখ ৬ হাজার ৬৫৭ জন মানুষ। ২০১৮ বিধানসভা নির্বাচন এবং ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ইশতেহারে অন্যতম ইস্যু ছিল নাগরিক তালিকা চূড়ান্ত করা।

অমিত শাহ বলেছে, আসামই আমাদের একমাত্র লক্ষ্য নয়। আমরা এই তালিকা তৈরি কার্যক্রম সারাদেশেই চালাবো এবং জাতীয় তালিকা তৈরি করবো। দেশের জনগণের একটি তালিকা থাকা উচিত। এটি এনআরসি, আসামের তালকা নয়।

চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হওয়ার আগ পর্যন্ত বিজেপি এই তালিকাকে পূর্ণ সমর্থন দিয়েছিলো।

চলতি মসের শুরুর দিকে অমিত শাহ বলেছিল, রাজ্যসভায় ব্যর্থ হওয়ায় আবারও নাগরিক বিল সামনে আনা উচিত। এই বিল অনুযায়ী বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে হিন্দু,শিখ ও বৌদ্ধরা সহজে ভারতীয় নাগরিকত্ব পাবে। তাঁদের ঘোষণা থেকে মুসলিম বিদ্বেষ স্পষ্টই ফুটে উঠে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশেরও উদ্বিগ্ন হওয়ার সঙ্গত কারণ রয়েছে। বাদ পড়াদের বেশির ভাগই বাংলাভাষী মুসলিম। একই সাথে বিভিন্ন সময়ে তাদের বাংলাদেশী বলে ভারতের তরফ থেকে দাবি করা হয়েছে।

মিয়ানমারে যেভাবে রোহিঙ্গাদের ওপর রাষ্ট্রীয় ও উগ্রপন্থী বৌদ্ধধর্মীয় গোষ্ঠী অত্যাচার চালিয়ে তাদের বাংলাদেশে আসতে বাধ্য করেছে, ঠিক তেমনিভাবে আসামসহ ভারতের মুসলিম জনগোষ্ঠীর ওপর অত্যাচার শুরু হওয়ার যথেষ্ট আশঙ্কা রয়েছে।

সূত্র: বাংলা ট্রিবিউন

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন