পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেম থেকে ৫৮ জন ফিলিস্তিনীকে তুলে নিয়ে গেছে ইহুদী সন্ত্রাসীরা!

0
359

ফিলিস্তিনের জবরদখলকৃত জেরুজালেমের সিলওয়ান এবং ইসাউইয়া শহরে অভিযান চালিয়ে কমপক্ষে ৫৫ জন ফিলিস্তিনীকে তুলে নিয়ে গেছে দখলদার ইসরাঈলী ইহুদী সন্ত্রাসীরা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে যে, দখলদার ইসরাঈলী ইহুদী সন্ত্রাসী সেনাবাহিনী, পুলিশ সদস্যের একটি শক্তিশালী বাহিনী জেরুজালেম এর ৪টি এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় প্রতিটি এলাকায় তল্লাশী চালিয়ে ধ্বংস করা হয় মুসলিমদের অনেক আসবাবপত্র। এছাড়াও প্রশিক্ষিত কুকুর ও গ্রেফতারীর ভয় দেখিয়ে অনেককেই নির্যাতন করে ইহুদী সন্ত্রাসী সেনারা।

সোমবার ২৩ সেপ্টেম্বর ভোর বেলায় শুরু হওয়া এই অভিযান ও তল্লাশীর নামে “সিলওয়ান এবং ইসাউইয়া” শহর দুটি হতে কমপক্ষে ৫৫ ফিলিস্তিনীকে তুলে নিয়ে যায় দখলদার ইহুদী সন্ত্রাসীরা।

গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে কয়েকজন হলেন- মোহাম্মদ আবদুল্লাহ দারি, তার ভাই মাহমুদ আবদুল্লাহ দারি, দিয়া আইমান ওবায়েদ, মোহাম্মদ ফওজি ওবায়েদ, সুফিয়ান নাসের মাহমুদ, তার দুই ভাই মোহাম্মদ ও আকরাম নাসের মাহমুদ, ফাদি আলী মোস্তফা, হারুন মোহাম্মদ মুহাইসিন, ওয়াসিম আইয়াদ দরি, জায়েদ আজলৌনি ও আলী জামাল প্রমুখ। বদর, বাসিল মোহাম্মদ দরবাস, তার ভাই কূসাই মোহাম্মদ দরবাস, সমীর আকরাম আটিয়া, ওয়াসিম নায়েফ ওবায়েদ, রাশাদ আমজাদ নাসের, হামজা মোহাম্মদ ইসা নাসের, তার ভাই ইসা মোহাম্মদ ইসা নাসের, মাহমুদ জামাল আটিয়া এবং মুহাম্মদ রজব ওবায়দ।

অন্যদিকে পশ্চিম তীরের বেথেলহামে অবস্থিত একটি ফিলিস্তিনী শরণার্থী শিবিরে অভিযান চালিয়ে তল্লাশি করে দখলদার ইহুদী সন্ত্রাসী সেনারা। সেখানে তারা ভাংচুর করার পাশাপাশি ৩ ফিলিস্তিনী যুবককে তুলে নিয়ে যায়।

ইসরাঈলী দখলদার ইহুদী সন্ত্রাসীরা পশ্চিম তীর এবং জেরুজালেমের শহরগুলোতে প্রতিদিনই মুসলিমদের ঘর-বাড়িতে তল্লাশির নামে শত শত ফিলিস্তিনীকে জোরপূর্বক তুলে নিয়ে যাচ্ছে। যার লক্ষ্য হচ্ছে ফিলিস্তিনকে যুবক শূণ্য করা।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন