সার্ক চুক্তি সত্ত্বেও বাংলাদেশগামী মালবাহী ট্রাক আটক করছে ভারত

0
592

ভারতের আসাম রাজ্যে নতুন আইনের কারণে হয়রানির শিকার হচ্ছে বোল্ডার ও পাথরবাহী বাংলাদেশগামী ভুটানের ট্রাকগুলো। ২৩ সেপ্টেম্বর জারি করা এক নির্দেশনার পর ট্রাকগুলোকে বেশ মোটা অংকের জরিমানা করা হচ্ছে।

ভুটানের রফতানিকারকরা অভিযোগ করেন যে গত বৃহস্পতিবার আসামের বনগাইগাও জেলায় ৪০টির মতো ভুটানিজ ট্রাক আটক করা হয় ওভারলোডিংয়ের কারণে।

তারা বলেন, সাউথ এশিয়ান ফ্রি ট্রেড এগ্রিমেন্ট (সাফটা)- এর আওতায় সার্ক দেশগুলোর মধ্যে যে চুক্তি রয়েছে তাতে বলা হয়েছে দুটি সদস্য দেশের মধ্যে ট্রানজিটের ক্ষেত্রে তৃতীয় দেশ কোন বাধা সৃষ্টি করবে না।

সার্কের সদস্য হলো বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা।

ইন্দো-ভুটান মৈত্রি সমিতির সাবেক সভাপাতি উগিয়েন রাফতেন বলেন, কোন সমস্যা ছাড়াই ভুটানের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে পাথর ও অন্যান্য সামগ্রী পরিবহন করে আসছে। তিনি স্বীকার করেন যে অনেক ট্রাক মানসম্মত ১৮  টনের চেয়ে বেশি ভার বহন করে। কিন্তু সাফটা আইন অনুযায়ী কোন ট্রানজিট দেশ (ভারত) কোন রফতানিকারক দেশকে (ভুটান) আমদানিকারক দেশে (বাংলাদেশ) পণ্য পাঠাতে বাধা দিতে পারবে না।

তিনি বলেন, ভুটানের গেলেফু থেকে নিয়মিত দালু (মেঘালয়-বাংলাদেশ সীমান্ত) হয়ে বাংলাদেশে পাথর পরিবহন করা হয়। আসামে প্রবেশের আগে পণ্য ও ডকুমেন্ট সিল করে দেয়া হয়। সাফটা চুক্তি অনুযায়ী আসাম ও মেঘালয়ের মধ্য দিয়ে ৩২১ কিলোমিটার পথ পারি দিয়ে গন্তব্যে পৌছার পর এগুলো খোলা হবে। কিন্তু আসামে আটক ও জরিমানা করা আমাদেরকে সমস্যায় ফেলে দিয়েছে।

রাফতেন জানান, মেঘালয়ের তিকরিকিল্লায় একটি সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার কারণে বহু ট্রাক আটকা পড়ে আছে।

সূত্র: দি হিন্দু

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন