বাংলাদেশের জন্য ফারাক্কার বাঁধ এখন মরণ ফাঁদ- আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী

0
300

 ফারাক্কার গেইট খুলে দিয়ে বাংলাদেশকে প্লাবিত করায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে আল্লামা আতাউল্লাহ হাফেজ্জী হাফিজাহুল্লাহ বলেছেন, ভারত সরকার ফারাক্কা বাঁধের ১১৯টি গেইট খুলে দিয়ে প্রতি বর্ষা মৌসুমে বাংলাদেশকে বন্যা কবলিত করার শুকনো মৌসুমে ফারাক্কা গেইট বন্ধ রেখে বাংলাদেশকে পানির ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করে আসছে। দীর্ঘ ৪৫ বছর যাবৎ ভারত এই চক্রান্ত করে বাংলাদেশের পদ্মা নদীসহ অনেক নদীকে মরা গঙ্গায় পরিণত করেছে। ফারাক্কার প্রভাবে প্রতি বছর বন্যায় কবলিত হয়ে বাংলাদেশের প্রাকৃতিক ভারসাম্য মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে একদিন সবুজ শ্যামল বাংলা মরুভুমিতে পরিণত হবে। ফারাক্কার বাঁধ এখন বাংলাদেশের জন্য মরণ ফাঁদ হয়ে দাড়িঁয়েছে। এর প্রভাবে নদীর নাব্যতা নষ্ট হওয়ায় কৃষি, মৎসসহ ৩২০ কিঃমিঃ এলাকা জুড়ে নৌ চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে। এতে সার্বিকভাবে প্রতি বছর বাংলাদেশের ক্ষতি হচ্ছে ৩০০ কোটি মর্কিন ডলার

তিনি বলেন, প্রতিবেশী কথিত বন্ধু রাষ্ট্র ভারত শক্তির দাপটে বাংলাদেশসহ প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলোর উপর রাষ্ট্রীয় শোষন চালিয়ে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করে স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র বাংলাদেশের জাতীয় নিরাপত্তা , রাজনীতি, অর্থনীতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে ভারত প্রত্যক্ষ পরোক্ষভাবে একের পর এক আগ্রাসী নীতি চালিয়ে যাচ্ছে। অবস্থা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না

তিনি আরো বলেন, নদী পানি সম্পদ কোন দেশের ব্যাক্তিগত সম্পদ নয়। বাংলাদেশের ৫৭টি আন্তর্জাতিক নদীর ৫৪টির উৎসই হলো ভারতের পর্বতময় অঞ্চল থেকে। বাংলাদেশের অবস্থান ভাটি অঞ্চলে হওয়ায় উজানের যেকোনো ধরনের পানি নিয়ন্ত্রনের প্রভাব বাংলাদেশের উপর পরে। ভারত সেদিকে কর্ণপাত না করে কলকাতা বন্দরের নাব্যতা বৃদ্ধির অজুহাতে ফারাক্কা বাঁধ নির্মান করায় বিপন্ন হচ্ছে বাংলাদেশ। এতে বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চল মরুকরণ হচ্ছে, পানির লবনাক্ততা বেড়ে সুন্দরবন নষ্ট হচ্ছে। ধংস হচ্ছে জীব বৈচিত্র। পানিতে মাত্রাতিরিক্ত আর্সেনিক বৃদ্ধিসহ মৎস সম্পদ নির্মুল হচ্ছে। শুকনো মৌসূমে খরা বর্ষা মৌসূমে বন্যার ফলে কৃষি সম্পদ ধংস হচ্ছে। নদী বন্দরসমূহের অচলাবস্থা সৃষ্টি হচ্ছে এবং নদী ভাঙনের কারনে গৃহহীন হচ্ছে অসংখ্য মানুষ। তিনি অবিলম্বে ফারাক্কা বাঁধ ভেঙে দেয়াসহ টিপাই বাঁধ ভারতের রিভার লিংকিং প্রজেক্ট (আন্তঃনদী প্রকল্প) বন্ধ করার দাবী জানান এবং বাংলাদেশভারত গঙ্গাচুক্তি সময়োপযোগী করার জন্য দুই দেশের সরকারের প্রতি আহবান জানান

গত বুধবার বিকালে কামরাঙ্গীর চর মাদ্রাসায় মতবিনিময় কালে তিনি এসব কথা বলেন

সূত্র: ইনসাফ টোয়েন্টিফোর ডটকম

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন