যুদ্ধ ক্ষেত্রে পরিণত হতে যাচ্ছে দজলা ফুরাতের ভূমি ইরাক, নিহত ১০০, আহত ৪০০০, বন্দী করা হয়েছে ৫৬৭ এরও অধিক!

0
398

বেকারত্ব, দুর্নীতি নির্মূল, সরকারি চাকরি নিশ্চিত করা এবং ইরানের গোলামী পরিত্যাগের দাবিতে উত্তাল দজলা ফুরাতের ভূমি ইরাক। টানা আজ ৫ দিন ধরে চলছে বিক্ষোভ। রাজধানী বাগদাদ হয়ে এই আন্দোলন ইতিমধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে বসরা, আল-মাসানী, ওয়াসেত, বাবেল, দিয়ালী এবং কিরকুকেও। দেশটির অন্যান্ন অঞ্চলগুলোও ধীরে ধীরে আন্দোলনের মোড় নিচ্ছে।
সময়ের সাথে সাথে এই আন্দোলনের তীব্রতা ও জনসাধারণের উপস্থিতি বেড়েই চলছে।

এদিকে বিক্ষোভকারীদের ঠেকাতে মারণাস্ত্রও ব্যবহার করছে দেশটির মুরতাদ সামরিক বাহিনী। ইরাকী মুরতাদ বাহিনীর হামলায় এখন পর্যন্ত প্রাণ হারিয়েছেন ১০০ এরও অধিক বিক্ষোভকারী, যাদের মধ্যে অনেককে স্নাইপার হামলা চালিয়েও হত্যা করার তথ্য প্রকাশ করছে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম। আহত হয়েছেন আরো ৪০০০ ( চার হাজার) এরও অধিক বিক্ষোভকারী। বন্দী করা হয়েছে ৫৬৭ এরও অধিক বিক্ষোভকারীদের। এদিকে আহত বিক্ষোভকারীদেরকে চিকিৎসারত অবস্থায় হাসপাতাল হতে বন্দী করছে দেশটির সন্ত্রাসী সামরিক বাহিনী। তারপরেও থামছেনা ইরাকীদের সরকার বিরোধী এই বিক্ষোভ।

বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ইরাক সরকার যদি সাধারণ জনগণের দাবি মেনে না নেয় এবং বিক্ষোভকারীদের উপর অমানবিক হামলা চালাতে থাকে তাহলে এটা হবে ইরাককে আবারো নতুন করে উত্তপ্ত এক যুদ্ধের ভূমিতে পরিণত করার নামান্তর। যার শেষ কোথায় গিয়ে থামবে তা বলা খুবই দুষ্কর, অনিশ্চিত। তবে এই যুদ্ধ পূর্বের যে কোন যুদ্ধের তুলনায় অনেকটাই ভয়াবহতার যে রুপ নিবে তা নিশ্চিত।

ক্রুসেডার ও সন্ত্রাসী আমেরিকার বর্বরোচিত আগ্রাসনের পর যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাকের ক্ষমতায় বসে ত্বাগুত “বারহাম সালিহ”। এই ত্বাগুত সরকার ইরাকের মুসলিমদের রক্তচুষে নিজের ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার প্রচেষ্টায় আছে। ইরাকের সংগ্রামী মুসলিমরা তাই সন্ত্রাসী এই সরকারের বিরুদ্ধে গত ৫দিন যাবৎ আন্দোলন করে যাচ্ছেন। বেকারত্ব, দুর্নীতি নির্মূল সরকারি চাকরি নিশ্চিত করণ এবং ইরানের গোলামী পরিত্যাগের দাবিতে গত বুধবার রাজধানী বাগদাদের রাস্তায় নেমে আসেন হাজার হাজার মানুষ। যা ক্রুমেই ছড়িয়ে পড়ে ইরাকের অন্য রাজ্যগুলোতেও। এ সময় বিক্ষোভকারীরা বিভিন্ন স্লোগানে প্রকম্পিত করে তুলেন ইরাক। অনেকে ইরাকের প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহের পদত্যাগের দাবিও তোলেন। এসময় তারা ইরাক ও ইরানের জাতীয়তাবাদী পতাকাকে পায়ে পিষে ফেলেন এবং আগুনেও পুড়িয়ে ফেলেন।

আন্দোলনে তাগুত সরকারের সন্ত্রাসী বাহিনী বর্বরোচিত হামলা চালালে এখন পর্যন্ত ১০০জন নিহত, ৪ হাজার বিক্ষোভকারী আহত এবং ৫৬৭ এরও অধিক বিক্ষোভকারীদের কে বন্দী করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছে আরব ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমগুলো।

 

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন