নোয়াখালীতে আবরার হত্যার প্রতিবাদী মানববন্ধনে বাঁধা দিয়েছে হিন্দুত্ববাদের দালাল পুলিশ!

0
329

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার প্রতিবাদে নোয়াখালীতে মানবন্ধন কর্মসূচিতে বাঁধা দিয়েছে রাষ্ট্রসন্ত্রাসী বাহিনী পুলিশ।

‘দ্য ডেইলি ক্যাম্পাস’ বার্তাসংস্থা জানায়, মঙ্গলবার সকাল  ১০ টায় নোয়াখালী জেলার মাইজদী টাউনহলের সামনে শতাধিক শিক্ষক-শিক্ষার্থী মানববন্ধন করতে চাইলে হিন্দুত্ববাদীদের দালাল পুলিশ তাদেরকে নিষেধ করে। ছাত্ররা অনুরোধ করা সত্ত্বেও তাদের এই শান্তিপূর্ণ  কর্মসূচি পালনে পুলিশ বাঁধা দেয়। একপর্যায়ে ছাত্রদের লাঠি চার্জ করার হুমকি দেয় পুলিশ। পরে সেখান থেকে চলে যান শিক্ষার্থীরা।

জানা যায়, নোয়াখালী জেলার পুলিশ সুপার হলো আলমগীর হোসেন এবং নোয়াখালী জেলা প্রশাসক তন্ময় দাস। এরা উভয়ে বিগত কিছুদিন যাবৎ হিন্দুদের বিভিন্ন পূজামণ্ডপে স্বপরিবারে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। আবার, এসকল হিন্দুত্ববাদীরাই আবরার হত্যার প্রতিবাদে নোয়াখালীতে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বাঁধা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে বলে মনে করা হয়।

এর আগে গত রোববার রাত ২টার দিকে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের একটি কক্ষে বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করে ভারতপন্থী ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। অমিত সাহা নামে এক হিন্দু এ হত্যাকাণ্ডের নেতৃত্ব দিয়েছে বলে জানা যায়। তবে, এখনো অবধি মূল অভিযুক্ত খুনি ইসকন সদস্য অমিত সাহাকে গ্রেফতার করা হয়নি। অনেকের মতে, এই উগ্র ইসকন সদস্য অমিত সাহাকে বাঁচানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। যেহেতু, আবরার ফাহাদ ফেসবুকে ভারতবিরোধী পোস্ট দেওয়ার কারণেই এমন নির্মমভাবে তাঁকে হত্যা করা হয়। হতে পারে, ভারতের দূতাবাসের নির্দেশেই খুনি অমিত সাহাকে আড়াল করছে হিন্দুত্ববাদের দালাল প্রশাসন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন