অবৈধভাবে মাছ ধরা নিয়ে BGB ও BSF এর মাঝে সংঘর্ষ, নিহত এক ভারতীয় মেজর, আহত আরো ১

3
391

দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশ জলসীমায় প্রবেশ করে অবৈধভাবে টনকে টন মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছে ভারতীয় জেলেরা। এদিকে বাংলাদেশের জেলেদের মাছ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে ভারতীয় জেলেদেরকে মাছ ধরার সুযোগ করে দিচ্ছে হিন্দুত্ববাদী ভারতপন্থী আওয়ামী অবৈধ সরকার। যার ফলে দীর্ঘদিন যাবৎ বাংলাদেশের জেলেদের মাঝে এক ধরণের উত্তেজনা সৃষ্টি হচ্ছিল, কারণ তারা নিজ দেশের মাছ ধরতে পারছেন না অথচ ভারতীয়রা কোন বাধা ছাড়াই প্রতিনিয়ত বাংলাদেশের জলসীমা হতে টনকে টন মাছ ধরে নিয়ে যাচ্ছে।

প্রতিদিনের মত আজও ভারতীয় জেলেরা অবৈধভাবে বাংলাদেশ জলসীমা মুর্শিদাবাদের জলঙ্গির চর পাইকামারিতে এসে মাছ শিকার করতে থাকে। প্রাথমিকভাবে বাংলাদেশ BGB এর সদস্যরা তাদেরকে মাছ ধরতে বারণ করে, কিন্তু বিজিবির বারণ করা সত্যেও ভারতীয় জেলেরা অবৈধভাবে মাছ শিকার করতে থাকে।

পরে বিজিবি সদস্যরা বাধ্য হয়ে ৩ ভারতীয় জেলেকে আটক করে, আর বাকিরা পালিয়ে গিয়ে ভারতীয় সন্ত্রাসী BSF এর কাছে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করে। এর কিছুক্ষণ পরেই BSF সদস্যরা BGB সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে। জানা যায়, একপর্যায়ে নিজেদের আত্মরক্ষার জন্য BGB সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। আর এতেই ভারতীয় এক মেজর নিহত এবং আরো এক BSF সদস্য আহত হয়।

ভারতীয় মিডিয়াগুলো এ বিষয়টিকে নিকৃষ্টভাবে উপস্থাপনের চেষ্টা করে যাচ্ছে এবং বাংলাদেশের বিরুদ্ধে জনমনে ঘৃণা সৃষ্টি করতে চাচ্ছে। অথচ, ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীরা নিয়মিত বিরতিতে সীমান্তে বাংলাদেশী মুসলিমদের লাশ ফেলছে। সে বিষয়গুলো নিয়ে কোন কথা নেই। আজ ভারতীয় সীমান্তরক্ষী মরলো বলে তাদের মানবতা জেগে উঠেছে!? নাকি বাংলাদেশের মুসলিমদের বিরুদ্ধে চরম ঘৃণা ও সুনির্দিষ্ট কোন পরিকল্পনার বাস্তবায়নেই তারা এরূপ প্রোপাগান্ডা চালাচ্ছে? সেই প্রশ্নই এখন মানুষের মনে। সম্প্রতি বাংলাদেশে হিন্দুত্ববাদীদের যে আগ্রাসন শুরু হয়েছে সেটাকে নতুন মাত্রা দিতেই তারা নতুন কোন চক্রান্ত সাজাতে পারে বলে ধারণা অনেকের।

3 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন