সন্ত্রাসী আ’লীগ নেতার কাছে লাঞ্চিত হয়ে আত্মহত্যা করল গরীব কৃষক

0
84

ফেনীর পরশুরামে সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগ নেতার পিটুনি খেয়ে অপমানে আত্মহত্যা করেছেন আবু আহাম্মদ (৫০) নামে এক কৃষক। মঙ্গলবার তার লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।

সোমবার রাতে উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের কাউতলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আবু আহাম্মদ উপজেলার কাউতলী গ্রামে মৃত রাজা মিয়ার ছেলে।

নিহতের স্ত্রী রহিমা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, সোমবার রাতে ধানক্ষেতে ওষুধ দেয়াকে কেন্দ্র করে মির্জানগর ইউনিয়ন ওয়ার্ড সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আহম্মদ তার স্বামী আবু আহাম্মদকে অফিসে ডেকে নিয়ে বটতলী বাজারে প্রকাশ্যে মারপিট করে।

একপর্যায়ে আবু আহাম্মদ সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগ নেতা তার মোবাইল ফোন দিয়ে আবুকে অফিসে পাঠানোর জন্য তাকে হুমকি দেয়। জবাবে স্বামী বাড়িতে নেই জানালে ফিরোজ লোকজন পাঠিয়ে তাকে বাড়ি থেকে তুলে নেয়ার হুমকি দেয় এবং অশ্লীল ভাষায় গালমন্দ করে।

পরে রাত ১০টার দিকে আবু আহাম্মদের লাশ বাড়ির পেছনে একটি গাছের সঙ্গে ঝুলতে দেখে পরিবারের লোক পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে।

মির্জানগর ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য মহিউদ্দিন ছুট্টো জানান, নিহত আবু আহাম্মদ পেশায় একজন কৃষক। সে বিভিন্ন জনের ধানখেতে ওষুধ দেয়ার কাজ করত। ফিরোজের সঙ্গে ওষুধ দেয়াকে কেন্দ্র করে ঝামেলা হয়েছে। রাতে আবু আহাম্মদের স্ত্রীকে একাধিকবার ফোন দিয়েছে বলে নিহতের স্ত্রী অভিযোগ করেন।

পরশুরাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুবুর রহমান জানান, তার লাশের ময়নাতদন্ত শেষে তার পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তার স্ত্রী বা পরিবারের কেউ লিখিত কোনো অভিযোগ দেয়নি। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন