এবার শ্রীলঙ্কায় নির্বাচিত মুসলিম বিদ্বেষী প্রেসিডেন্ট গোটাবায়া রাজাপাকসে

0
211

মুসলিম বিদ্বেষী গোটাবায়া রাজাপাকসে শ্রীলঙ্কার নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে। সে দেশটির সাবেক যুদ্ধকালীন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। তার ভাই মাহিন্দ রাজাপাকসে যখন শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট ছিল সে সময় গোটাবায়া ছিল প্রতিরক্ষা সচিব।

চলতি বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ক্ষমতাসীন সরকারের আবাসন বিষয়ক মন্ত্রী সাজিথ প্রেমাদাসার এবং গোটাবায়া রাজাপাকসের মধ্যে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়েছে।

২০০৭ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত লিবারেশন টাইগার্স অব তামিল ইলমের (এলটিটিই) বিরুদ্ধে সেনাবাহিনীর অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিল সে। এই অভিযানের ফলেই টাইগারদের পরাজয় ঘটেছিল এবং টাইগার নেতা ভেলুপিল্লাই প্রভাকরণ নিহত হয়েছিল।

রাজাপাকসেরা চার ভাই। গোটাবায়া এবং মাহিন্দ ছাড়া অন্য এক ভাই হল বাসিল রাজাপাকসে। মাহিন্দ রাজাপাকসে ২০০৫ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন সে রাষ্ট্রপতির উপদেষ্টা ছিল এবং ২০০৭ থেকে ২০১৫ পর্যন্ত সাংসদ ছিল। অপরদিকে তাদের আরেক ভাই চামাল রাজাপাকসে ২০১০ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত শ্রীলঙ্কা সংসদের অধ্যক্ষ ছিল।

এলটিটিইর বিরুদ্ধে যুদ্ধে গোটাবায়ার বিরুদ্ধে মানবতা লঙ্ঘনকারী অপরাধের অভিযোগ উঠেছে। এই যুদ্ধে কয়েক হাজার সাধারণ মানুষের মৃত্যু হয়। শ্রীলঙ্কায় সিংহলি বৌদ্ধদের আধিপত্য স্বীকৃত হয় তামিল বিদ্রোহীদের পরাজয়ের জের ধরেই।

শ্রীলঙ্কার মুসলিমবিরোধী বৌদ্ধ উগ্রপন্থী শক্তি বলে পরিচিত বদু বালা সেনার মূল শক্তি হিসেবে ধরা হয় গোটাবায়া রাজাপাকসেকে। দেশটিতে ২০১৪ সালের মুসলিমবিরোধী দাঙ্গার পেছনে ছিল এই সংগঠন।

ধারণা করা হয়, ২০১৮ সালের ক্যান্ডিতে মুসলিমবিরোধী সন্ত্রাসের পেছনেও এই সংগঠনের হাত রয়েছে।

শ্রীলঙ্কা, ইউরোপ এবং যুক্তরাষ্ট্রে গোটাবায়া মানবাধিকার লঙ্ঘনে অভিযুক্ত।

এক সময় সে মার্কিন নাগরিক ছিল এবং তার সেখানে বাড়িও ছিল। তবে দেশের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে লড়াইয়ের জন্য মার্কিন নাগরিকত্ব ছেড়ে দিয়েছে বলে জানিয়েছে সে।খবর: ইনসাফ২৪

এ বছরের শুরুতে যুক্তরাষ্ট্রে গোটাবায়ার বিরুদ্ধে দু’টি মামলা করা হয়। এতে অন্যান্য অভিযোগের মধ্যে এক সাংবাদিককে অত্যাচার ও খুনের অভিযোগও রয়েছে।

দেশে রাজাপাকসের শাসন চলাকালীন বহু বিক্ষুব্ধদের নিখোঁজ হওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ উঠেছে স্বাধীন সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে হামলারও।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন