খোরাসান | মুজাহিদদের হামলায় মুরতাদ বাহিনীর ২টি ট্যাঙ্ক ধ্বংস, ৯ সৈন্য নিহত এবং ১৩ সৈন্যের আত্মসমর্পণ!

0
200

আল-ফাতাহ অপারেশনের ধারাবাহিকতায় গত মধ্যরাতে লাগমান প্রদেশের “দৌলত-শাহ” জেলায় মুরতাদ বাহিনীর গোয়েন্দা বিভাগের সদস্য “মুহাম্মদ-জান” কে টার্গেট করে লেজারগাণ দ্বারা হামলা করেন, এতে সে গুরুতর আহত হয়, অতঃপর সকাল বেলায় “কোটালী” এলাকায় মুরতাদ বাহিনীর একটি কনভয়ে হামলা চালান তালেবান মুজাহিদিন। যাতে ২টি ট্যাঙ্ক ধ্বংস হওয়া ছাড়াও ৩ সৈন্য নিহত এবং ২ সৈন্য আহত হয়।

দুপুর-বেলায় বাগলান প্রদেশের পোলখামরী জেলায় মুরতাদ বাহিনীর ট্যাঙ্ক বোমা মেরে উড়িয়ে দেন তালেবান মুজাহিদিন। এসময় ট্যাঙ্কের ভিতর থাকা ২ সৈন্য নিহত এবং আরো ২ সৈন্য গুরুতর আহত হয়।

অন্যদিকে বাগলানের প্রাদেশিক জেলার বিভিন্ন স্থান হতে ১২ আফগান সৈন্য তালেবানদের দাওয়াতে সাড়া দিয়ে মুরতাদ বাহিনীর পক্ষ্য হয়ে যুদ্ধ করা হতে নিজেদেরকে মুক্ত ঘোষণা করেন এবং তালেবান মুজাহিদদের নিকট এসে আত্মসমর্পণ করে।

এদিকে নানগাহার প্রদেশের “আচীন” জেলায় ক্রুসেডার আমেরিকা ও আফগান মুরতাদ বাহিনীর ঘাঁটিতে তীব্র মিসাইল হামলা চালান, একইভাবে জালালাবাদ শহরে ক্রুসেডার আমেরিকার বিমানঘাঁটিতেও মিসাইল হামলা চালান তালেবান মুজাহিদিন, যার ফলে কুফ্ফার ও মুরতাদ বাহিনীর অনেক সৈন্য হতাহত হওয়ার পাশাপাশি সামরিক ও বিমানঘাঁটির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়।

অন্যদিকে পাকতিয়া প্রদেশের “জারমাত” জেলায় তালাবান মুজাহিদদের লেজারগাণ হামলায় ২ সৈন্য নিহত এবং ১ সৈন্য তালেবানদের নিকট আত্মসমর্পণ করে।

এভাবে গজনিতেও তালেবান মুজাহিদদের হামলায় নিহত হয় আরো ২ মুরতাদ সৈন্য।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন