খেলার মাঠে না যাওয়ায় শিক্ষার্থীকে মারধর সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের

0
233

খেলার মাঠে না যাওয়ায় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) প্রথম বর্ষের (৪৮তম ব্যাচ) এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে শাখা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের এক কর্মী। আজ বুধবার বিকেল তিনটায় বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম কামালউদ্দিন হলে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ফাহিম ফয়সাল সরকার ও রাজনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের (৪৭ ব্যাচ) শিক্ষার্থী এবং শাখা সন্ত্রাসী ছাত্রলীগের সভাপতি মো. জুয়েল রানার অনুসারী।

মারধরের শিকার ইব্রাহিম খলিল বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের শিক্ষার্থী। ঘটনার বিচার দাবি করে তিনি প্রক্টর ও হলের প্রাধ্যাক্ষ বরাবর লিখিত অভিযোগে দিয়েছেন।

মারধরের শিকার ইব্রাহিম জানান, আমি অসুস্থ। বিভাগে টিউটোরিয়াল পরীক্ষা শেষ করে হলে ফেরার পরপরই সিনিয়ররা আমাকে গেস্টরুমে ডাকে। সেখানে গেলে সেখানে জোর করে খেলার জন্য টাকা চায় এবং খেলার মাঠে যাওয়ার নির্দেশ দেয়। আমি অসুস্থ থাকায় মাঠে যেতে অসম্মতি জানালে অকথ্য ভাষায় গালি গালাজ করে এবং মারধর করে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, ‘মারধরের বিষয়টি আমি শুনেছি। আমি ক্যাম্পাসের বাইরে থাকায় হলের ওয়ার্ডেনকে জানিয়েছি। এ বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

মো. জুয়েল রানা নামে এক বড় ভাই বলেন, ‘আমি শুনেছি। বিষয়টি দেখতেছি।’ মারধরের বিষয়ে অভিযুক্ত ফাহিম ফয়সালের মুঠোফোনে একাধিকবার কল দিলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

কালের কন্ঠের বরাতে জানা যায় এ ঘটনার দুদিন আগে গত ১৭ ফেব্রুয়ারি শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি শামীম সিকদারের বিরুদ্ধেও ফ্যানের সুইচ বন্ধ করাকে কেন্দ্র করে এক শিক্ষার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছিল। সে ঘটনায়ও প্রক্টরের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলেন মারধরের শিকার প্রথম বর্ষের এক শিক্ষার্থী।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন