দিল্লিতে মালাউন হিন্দু সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত ২৭, আহত ২শতাধিক

0
469

ভারতের বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) বিরোধী বিক্ষোভে এবার উত্তর-পূর্ব দিল্লির ভজনপুরা এলাকায় নতুন করে মুসলিমদের উপর হামলা চালাতে শুরু করেছে উগ্র হিন্দুরা। গত রোববার থেকে ভারতীয় মালাউন পুলিশ বাহিনীর সহায়তায় হিন্দু সন্ত্রাসীদের হামলায় শুধু দিল্লিতেই কমপক্ষে ২৭ জন মারা গেছেন এবং আহত হয়েছেন ২০০ জনেরও অধিক।

এদিকে গত কয়েকদিনে সংঘর্ষে উগ্র হিন্দুরা উত্তর-পূর্ব দিল্লির এলাকাগুলোর মুসলিমদের অনেক বাড়িঘর-দোকানপাটে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে। হিন্দুত্ববাদী ভারতীয় মালাউনদের এই আগুন থেকে বাদ পড়েনি মুসলিমদের পবিত্র স্থান মসজিদ ও পবিত্র গ্রন্থ আল-কুরআন। পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আশঙ্কায় বাড়িঘর ছাড়ছে আতঙ্কিত অনেক মুসলিম।

গত বছরের ১১ ডিসেম্বর ভারতের হিন্দুত্ববাদী পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় মুসলিম বিরুধী বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাস হয়। পরদিন দেশটির মালাউন রাষ্ট্রপতি এই বিলে স্বাক্ষর করলে সেটি আইনে পরিণত হয়। বিলটি আইনে পরিণত হওয়ার পর দেশজুড়ে বিক্ষোভ করছেন দেশটির হাজার হাজার মানুষ। তবে গত তিনদিন ধরে দিল্লিতে এই বিক্ষোভ সহিংস আকার ধারণ করেছে। সেখানে মুসলিমদের বেছে বেছে মারধর, বাড়িতে আগুন, দোকানপাটে লুটপাট করছে বিজেপির সমর্থক হিন্দু সন্ত্রাসীরা।

গত তিনদিন ধরে দিল্লিতে নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞ চললেও এ নিয়ে একটি শব্দও উচ্চারণ করেননি ভারতের প্রধানমন্ত্রী গুজারাটের কষাই মালাউনদেরকে মুসলিমদের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেওয়া নরেন্দ্র মোদি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া ট্যুডে বলছে, নয়াদিল্লির মৌজপুর, জাফরাবাদ, চাঁদবাগ ও কারাওয়াল নগর এলাকায় কারফিউ জারি করেছে প্রশাসন। এলাকাগুলোতে কেউ রাস্তায় নামলে দেখামাত্রই গুলি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন