খোরাসান | কাবুল সরকারের কমান্ডো বাহিনীতে শহিদী হামলা, হতাহত ৫০ এরও অধিক

2
649
খোরাসান | কুবুল সরকারের কমান্ডো বাহিনীতে শহিদী হামলা, নিহত-আহত ৫০ এরও অধিক

কাবুল সরকারের মুরতাদ কমান্ডো বাহিনীর সামরিক কনভয়ে একটি শহিদী হামলা চালিয়েছেন একজন তালেবান মুজাহিদ। এতে ৫০ এরও অধিক কমান্ডো সেনা নিহত ও আহত হয়েছে।

মুরতাদ কাবুল সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় (এমওডি) জানিয়েছে যে, গত ২০ জুলাই বিকেলে আফগানিস্তানের ময়দান ওয়ার্দাক প্রদেশের সৈয়দাবাদ জেলায় মুরতাদ কাবুল সরকারের ন্যাশনাল আর্মির (এএনএ) যানবাহনের একটি কনভয়তে গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ করা হয়েছে।

ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তান এই হামলার দায় স্বীকার করে বলেছিল যে, উক্ত শহিদী হামলাটি কাবুল সরকারের কমান্ডো বাহিনীর একটি কাফেলাকে লক্ষ্য করে পরিচালনা করা হয়েছিল, যেসকল কমান্ডোরা সবেমাত্র গজনি প্রদেশে একটি অভিযান থেকে ফিরে এসেছিল।

ইমারতে ইসলামিয়ার প্রকাশিত এক রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, মুরতাদ কাবুল সরকারের কমান্ডো বাহিনীর উপর “মুজাহিদ আবদুল্লাহ গজনভী” নামক একজন জানবায তালেবান মুজাহিদ উক্ত শহিদী হামলাটি চালিয়েছেন।

ইমারতে ইসলামিয়ার কেন্দ্রীয় মুখপাত্র মুহতারা জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ হাফিজাহুল্লাহ্ দায় স্বীকারমূলক প্রাথমিক এক বার্তায় জানিয়েছেন, শহিদ মুজাহিদ আবদুল্লাহ গজনভীর পরিচালিত উক্ত শহিদী হামলায় মুরতাদ কাবুল সরকারের কমান্ডো বাহিনীর ৭টি ট্যাঙ্ক ও সামরিকযান ধ্বংস হয়েছে এবং নিহত ও আহত হয়েছে ৪৮ এরও অধিক কমান্ডো সেনা।

হামলার কারণ হিসাবে তালেবান মুখপাত্র জানান যে, “আমাদের অনেক বেসামরিক নাগরিকসহ বিভিন্ন প্রদেশে বেসামরিক নাগরিকদের লক্ষ্য করে শত্রুর নির্বিচারে বোমা ও রকেট হামলা এবং বেসামরিক লোকদের বিরুদ্ধে কাবুল বাহিনীর অভিযানের প্রতিক্রিয়া হিসাবে এই আক্রমণ করা হয়েছিল।  এই অভিযানটি ক্রিয়া ছিলনা রবং একটি প্রতিক্রিয়া ছিল।

তিনি আরো বলেন যে “কাবুল প্রশাসন” বন্দীদের মুক্তিতে বিলম্ব করে আন্তঃ আফগান আলোচনার শুরু এবং সর্বজনীন শান্তি রোধ করার চেষ্টা করছে।

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন