ভারতে মাওবাদীদের হামলায় মালাউন বাহিনীর মৃতের সংখ্যা বাড়ছে, নিহত ২৩, আহত ৩০

7
757
ভারতে মাওবাদীদের হামলায় মালাউন বাহিনীর মৃতের সংখ্যা বাড়ছে, নিহত ২৩, আহত ৩০

মধ্য ভারতের ছত্তিশগড়ে মাওবাদী বিদ্রোহীদের হামলায় মালাউন বাহিনীর অন্তত ২৩জন সদস্য প্রাণ হারিয়েছে, গুরুতর জখম হয়েছে আরও প্রায় জনা তিরিশেক।

এর মধ্যে শনিবার মধ্যরাতেই একজনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছিল, আজ ভোররাতে আহত আরও চারজন হাসপাতালে মারা যায়।

রবিবার সকালে গভীর জঙ্গলে তল্লাশি চালিয়ে আরও সতেরোজনের লাশ পাওয়া গেছে। ঘটনাস্থল থেকে পাওয়া গেছে শুধুমাত্র একজন নারী গেরিলার লাশ।

গত দুসপ্তাহের মধ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার মাওবাদীরা মালাউন বাহিনীর ওপর বিধ্বংসী আঘাত হানল।

ছত্তিশগড় রাজ্যের মাওবাদী-অধ্যুষিত দুটি জেলা, বিজাপুর ও সুকমার সীমান্তে যে ঘন জঙ্গল – শনিবার ঠিক সেখানেই এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে।

এর আগে শুক্রবার রাতেই তারেম, উসুর, পামেড, মিনপা ও নারসাপুরম – রাজ্যের এই পাঁচটি পয়েন্ট থেকে মালাউন বাহিনীর দুহাজারেরও বেশি সদস্য বস্তারের গহীন জঙ্গলে মাওবাদীদের বিরুদ্ধে একযোগে যৌথ অভিযান শুরু করেছিল।

রাজ্যের অ্যান্টি-মাওয়িস্ট ফোর্সের ডেপুটি আইজি ও পি পল জানান, শনিবার দুপুর নাগাদ তারেম থেকে রওনা হওয়া একটি টহলদার বাহিনীর সঙ্গে জোনাগুডা গ্রামের কাছে মাওবাদী গেরিলাদের ‘এনকাউন্টার’ শুরু হয়।

বেশ কয়েক ঘন্টা ধরে চলা ওই বন্দুকযুদ্ধে যৌথ বাহিনীর বহু সদস্য হতাহত হয়, তাদের অনেকেরই খোঁজ মিলছিল না।

গত মধ্যরাতের পর বস্তার রেঞ্জের পুলিশ মহাপরিদর্শক পি সুন্দররাজন সংবাদমাধ্যমকে জানান, “দুটি হেলিকপ্টার পাঠিয়ে আহতদের নিয়ে আসা হয়েছে, তারা একজনের মরদেহও নিয়ে ফিরেছে।”

“বাকি অনেকেই এখনও নিখোঁজ। এদিন সকালেই আহতদের মধ্যে আরও চারজন প্রাণ হারায়, ওদিকে জঙ্গলের গভীর থেকে উদ্ধার হয় আরও সতেরোজনের গুলিবিদ্ধ দেহ।

যৌথ বাহিনীর কাছ থেকে ১২টিরও বেশি আধুনিক অস্ত্র ছিনিয়ে নিয়ে গেছে মাওবাদীরা।

7 মন্তব্যসমূহ

  1. আলহামদুলিল্লাহ। ভাই মনটা খুব খুশি হল। মাওবাদী সঠিক মতবাদে বিশ্বাসী হোক কিংবা বাতিল মতবাদে বিশ্বাসী হোক। সর্বাবস্থায় এটি আমাদের জন্য অত্যন্ত সুখকর খবর।মুহতারাম ভাই তারপরও একটু জানতে মন চায় মাওবাদীদের ধর্ম ও আকিদা সম্পর্কে।

  2. চীনে কম্যুনিজম প্রতিষ্ঠাকারী মাওসেতুং এর অনুসারী। এরা মাওয়ের আদর্শানুযায়ী গেরিলা যুদ্ধের মাধ্যমে কম্যুনিস্ট রাষ্ট্র কায়েম করতে চায়।

  3. জাঝাকাল্লাহু খাইরান মূহতারাম ভাই।ওদের কপালে হেদায়েত থাকলে আল্লাহ ওদেরকে হেদায়েত দান করুন।আর হেদায়েত না থাকলে আল্লাহ তাআলা ওদেরকে একে অপরের দ্বারা একে অপরকে ধ্বংস করে দিন।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন