মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনাকে রাত ৩টায় র‍্যাব পরিচয়ে গুম

5
637
মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনাকে রাত ৩টায় র‍্যাব পরিচয়ে গুম

আজ বুধবার (০৭ এপ্রিল) রাত ৩টায় ‘শিশু বক্তা’ মাওলানা রফিকুল ইসলাম নেত্রকোনাকে তার নিজ বাসা থেকে র‍্যাব পরিচয়ে তুলে নিয়ে গেছে। তার ব্যক্তিগত সহকারীর সূত্র দিয়ে অনেকেই সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এ খবর পোস্ট করে যাচ্ছে। মাওলানা রফিকুল ইসলামের সর্বশেষ পোস্টে তিনি লিখেন, আমাকে গুম করার চেষ্টা চলছে,

জুবায়ের বিন আরমান লিখেন, রফিকুল ইসলাম মাদানী নিখুজ! নিখুজ হওয়ার আগের ভিডিও দেখলাম! তিনি যে ভাষায় কথা বলেছেন, তাতে নিশ্চিত তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে! কয়দিন আগে মিছিল থেকে গ্রেফতার হন রফিকুল! তারপর  আবার ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে!

নিশ্চয়ই তার নিখুজ হওয়া দুঃখজনক।

উল্লেখ্য, গুম হওয়ার আগে তিনি এক লাইভ ভিডিওতে বর্তমান মাফিয়া সরকারের বিরুদ্ধে এক আমীরের নির্দেশে সঠিক  ভাবে আন্দোলন করার কথা বলেছিলেন।

5 মন্তব্যসমূহ

  1. আন্দোলন নয়,জিহাদের কথা বল।
    যে খানে মুসলিমদের কোন ক্ষতি নেই, বাচলে গাজী, মরলে শহীদ।
    আর কাফেরদের শুধু ক্ষতি আর ক্ষতি।

    আন্দোলনের কথা বলে বলে কেন মুসলিমদেরকে বিজয় এবং শহিদ হওয়া সৌভাগ্য থেকে বঞ্চিত করছেন?
    এর জন্য কী আপনারা দায়ী নয়???

    আল্লাাহ আমাদেকে সঠিক পথে পরিচালনা করুন!!

  2. এই আন্দোলনে যোগ দিতে বলছি না, তবে এগুলো জিহাদের ভূমিকায় রুপান্তরিত হতে পারে। আর আমরা তো জিহাদ শুরুর ঘোষণা দেই না, প্রস্তুতির কথাই বলি। বক্তা আলিমগণ কেনো প্রস্তুতি ছাড়া জিহাদের ঘোষণা দিয়ে হাঁসির পাত্র হবেন? যদি বলেন প্রস্তুতির কথা প্রকাশ্যে তারা কেনো বলেন না? আমরা কি প্রকাশ্যে বলতে সক্ষম? ইশারায় তারা যথেষ্ট বলেন। জিহাদ শুরু করতে পারছি না বলে মৌখিক প্রতিবাদ তো বন্ধ রাখা যায় না, আর তা করতে গেলে হানাহানি ও শাপলা চত্বরের মত ঘটনা ঘুরে ফিরে আসে। উম্মতের মধ্যে পারস্পরিক কোমলতা আল্লাহ তায়ালা ফিরিয়ে দিন।

    • আল্লাহ তায়ালা উনাকে সহ পৃথিবীর সমস্ত আলিম উলামা দেরকে হেফাজত করুন।আর আলিম উলামা দেরকে সম্বোধন করে বলছি হে উলামাগণ! এখনো কি আপনারা বলবেন যে সরকার আমাদের শত্রু না প্রশাসন আমাদের শত্রু না। স্পষ্ট কথা হলো তারা সবাই দলগত ভাবে আমাদের শত্রু।হে উলামাগণ! এখনো কি আপনারা আত্নপ্রবঞ্চনায় ডুবে থাকবেন। এখনো কি আপনারা নিজেদেরকে ধোঁকায় নিমজ্জিত রাখবেন।না কি বাস্তবতার নিরিখে শরীয়ত নির্দেশিত পথে হাঁটবেন? একবার আসুন না প্রকৃত জিহাদের পথে দেখবেন আল্লাহর নুসরাত, পাবেন হৃদয়ে প্রশান্তি।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন