তিন কলেজ ছাত্রীকে অকথ্য গালিগালাজ ও হুমকি সন্ত্রাসী পুলিশ কর্মকর্তার

0
936
তিন কলেজ ছাত্রীকে অকথ্য গালিগালাজ ও হুমকি সন্ত্রাসী পুলিশ কর্মকর্তার

বাড়িতে গিয়ে তিন কলেজছাত্রীকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল ও তাদের ইয়াবা দিয়ে জেলে ঢোকাবে বলে হুমকি দিয়েছে সিলেটের বিশ্বনাথ থানা সন্ত্রাসী পুলিশের এসআই আব্দুল লতিফ।

যুগান্তর থেকে জানা যায় , অভিযোগকারী রাহেলা বেগম উপজেলা সদরের পাশ্ববর্তী জানাইয়া গ্রামের আশিক আলীর প্রথম স্ত্রী।

রাহেলা বলেন, “গত বৃহস্পতিবার (৫ ডিসেম্বর) আমার সতিন মনোয়ারা বেগমের (৪০) দেয়া একটি অভিযোগ তদন্তে বাড়িতে গিয়ে এসআই আব্দুল লতিফ আমার কলেজে পড়ুয়া তিন মেয়েকে হুমকি দেয়।”

প্রতিবাদ করলে সন্ত্রাসী এসআই লতিফ অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে বলে, ‘তোদের মতো হাজারও বেহায়া মেয়েদের জেলে ঢোকিয়ে উচিৎ শিক্ষা দিয়েছি’। একদম ইয়াবা দিয়ে জেলে চালান করে দেব। আর আমার হাত কতটুকু লম্বা তোরা কেন? প্রধানমন্ত্রীও জানে না’।

স্বামী ও সতিনের সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় ওই বছরেই ২ ছেলে ও ৩ মেয়েকে নিয়ে পৃথক হয়ে একই বাড়িতে আলাদা বসবাস শুরু করে রাহেলা। বর্তমানে রাহেলার দুই ছেলে ব্যবসা করছে আর ৩ মেয়ে কলেজে লেখাপড়া করছে।

এদিকে সম্প্রতি পারিবারিক কলহের জেরে দ্বিতীয় স্ত্রী মনোয়ার সঙ্গেও বিবাদে জড়িয়ে ঘরছাড়া হন আশিক আলী।টাকার জন্য প্রথম স্ত্রী রাহেলার ছেলে ইমামুল ইসলামের কাছে বাড়ির ৯টি গাছ ৪হাজার টাকায় বিক্রি করে ওই টাকা নিয়ে অন্যত্র চলে যান আশিক আলী।

পরদিন সকালে থানায় গিয়ে ইমামুলের বিরুদ্ধে জোরপূর্বক গাছ কাটার অভিযোগ করেন মনোয়ারা।

এর পরদিন রাহেলার মেঝো মেয়ে সাহেদা বেগমকে পিটিয়ে আহত করেন মনোয়ারা।বিষয়টির সূরাহা করতে দুইবার তাদের বাড়িতে যায় সন্ত্রাসী এসআই আব্দুল লতিফ।

এসময় সে মনোয়ারার পক্ষ নিয়ে রাহেলার কলেজ পড়ুয়া মেয়েদের ইয়াবা দিয়ে জেলে ঢোকানোর হুমকি দেয়।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধচুয়েট শিক্ষার্থীর ওপর আওয়ামী দালাল পুলিশি হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ, স্মারকলিপি
পরবর্তী নিবন্ধগৌরনদীতে বাস স্ট্যান্ডে হামলা চালাল সন্ত্রাসী ছাত্রলীগ নেতা!