স্কুলে ‘বাবরি মসজিদ ভাঙা’র শিক্ষা দিচ্ছে সন্ত্রাসী সংগঠন আরএসএস (ভিডিও)

1
904

বাবরি মসজিদ মামলার রায় ঘোষণা করেছে ভারতের মালাউন সুপ্রিম কোর্ট। সেই রায়ে বাবরি মসজিদের জায়গায় রামমন্দির তৈরির নির্দেশ যেমন দেওয়া হয়েছে, তেমনি মসজিদের জন্য বিকল্প পাঁচ একর জমি দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। আইনিভাবে বাবরি মসজিদের জায়গায় রামমন্দির নির্মাণের রায়ের পর  আরএসএস যে সেই ইস্যুকেই মানুষের মনে গেঁথে রাখতে চাইছে, তার আরেকবার প্রমাণ হলো কর্নাটকে।

সেখানকার এক আরএসএস পরিচালিত স্কুলে ছোট ছোট ছাত্রদের বাবরি মসজিদের প্রতীকী বানিয়ে তা ভাঙার শিক্ষা দেওয়া হলো। পুরো ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গেছে ভারতজুড়ে।

গত রবিবার কর্নাটকের দক্ষিণ কন্নড় জেলার শ্রী রাম বিদ্যাকেন্দ্র হাইস্কুলে একাদশ আর দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রদের জন্য ওই বিশেষ ক্লাসের ব্যবস্থা করা হয়। তাতে দেখা যায়, বাবরি মসজিদের একটি প্রতীকী তৈরি করা হয়েছে। বেশ কিছু শিক্ষার্থী ওই প্রতীকীকে ঘিরে রেখেছে। চারিদিকে গেরুয়া পতাকা উড়ছে। কিছুক্ষণ পরেই প্রতীকী ঘিরে রাখা ছাত্ররা ভেঙে ফেলছে সেটি।

পুরো ঘটনার একটি ভিডিও সামনে আসতেই তোলপাড় পড়ে গেছে চারিদিকে। অনেকেরই প্রশ্ন, বাবরি মসজিদ ভাঙা যে অপরাধ হয়েছিল, তা জানিয়ে দিয়েছে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট। সেই অপরাধই প্রকারান্তরে শেখানো হচ্ছে ছোট-ছোট শিক্ষার্থীদের।

অনেকেই বলছেন, এই সংস্কৃতিতেই বিশ্বাস করে সন্ত্রাসী সংগঠন আরএসএস। সমালোচনা শুরু হওয়ার পরও অবশ্য ছাত্রদের পাশেই দাঁড়িয়েছে  আরএসএস সন্ত্রাসী তথা ওই স্কুলের প্রেসিডেন্ট প্রভাকর ভাট। সে বলেছে, আমি আমার ছাত্রদের জন্য গর্বিত।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন