সন্ত্রাসী বিএসএফ কর্তৃক সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবি রাবি শিক্ষার্থীদের

0
609
সন্ত্রাসী বিএসএফ কর্তৃক সীমান্তে হত্যা বন্ধের দাবি রাবি শিক্ষার্থীদের

বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশি হত্যা বন্ধের দাবি জানিয়েছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। সীমান্তে অনবরত বাংলাদেশিদের বিএসএফ কর্তৃক হত্যার প্রতিবাদে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে আয়োজিত মানববন্ধন থেকে শিক্ষার্থীরা এ দাবি জানান। বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনে ‘শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ’ ব্যানারে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

শিক্ষার্থীরা বলেন, বর্তমানে সন্ত্রাসী বিএসএফ সীমান্তবর্তী বাংলাদেশিদের জন্য এক আতঙ্কের নাম। কেননা তাদের গুলির শব্দে ঘুম ভাঙে সীমান্তবর্তী মানুষদের। প্রায় প্রতিদিনই কেউ না কেউ বিএসএফ’র গুলিতে নিহত হচ্ছে। বাংলাদেশ ভারত যৌথচুক্তি অনুসারে বিনা অনুমতিতে বাংলাদেশ থেকে কেউ ভারতে গেলে সে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে গণ্য হবে। আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে তার বিচার হবে। কিন্তু বিএসএফ নিজেরাই আইন হাতে তুলে নিচ্ছে। আর একজন বাংলাদেশিও নিহত হওয়ার আগে আমরা এর সুরাহা চাই। সীমান্তে হত্যা বন্ধ চাই।

বক্তারা আরো বলেন, সীমান্তে নিহত হচ্ছে কিন্তু আমাদের দেশের পক্ষ থেকে তেমন কোনো প্রতিবাদ হচ্ছে না। এমনকি ভারত থেকেও কোন দুঃখ প্রকাশ করছে না। যাদের পরিবারের কেউ সীমান্তে হত্যার শিকার হয়েছে সরকারের পক্ষ থেকে তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবিও জানান বক্তারা।

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের রাবি শাখার যুগ্ম আহ্বায়ক মোর্শেদুল ইসলামের সঞ্চলনায় মানববন্ধনে বক্তব্য দেন- রাজশাহী প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আসলাম উদ দৌলা, রাকসু আন্দোলন মঞ্চের আহ্বায়ক আব্দুল মজিদ অন্তর, অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মো. রানা প্রমুখ।

সূত্রঃ কালের কন্ঠ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন