ভারতে মুসলমানদের আন্দোলন জারি রাখার আহ্বান দেওবন্দের

0
769

এনআরসি বাতিলের জন্য চলমান আন্দোলনকে জারি রাখার আহ্বান জানিয়েছে ভারতের বিখ্যাত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলূম দেওবন্দ, ৭ ফেব্রুয়ারি গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানিয়েছে। নিচে বিবৃতির হুবহু তুলে ধরা হলো-

দারুল উলুম দেওবন্দ ভারত সরকারের নিম্নুক্ত বিবৃতি যে “এখনও পর্যন্ত এনআরসি সমগ্র ভারতে জারি করার কোনও ফায়সালা করা হয়নি” তে আশ্বস্ত নয়। সিএএ এবং এনআরসি জাতীয় পর্যায়ের একটি অত্যন্ত স্পর্শকাতর বিষয়। এটাকে হালকাভাবে কখনই নেওয়া যেতে পারে না। সিএএ প্রত্যাহার এবং এনআরসি আগামীতে কখনই জারি না করার পরিপূর্ণ বিশ্বাস হাসিল না হওয়া পর্যন্ত সংবিধানপ্রদত্ত অধিকার প্রয়োগ করতঃ তার বিরুদ্ধে আমাদের সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া উচিত।

দারুল উলূম দেওবন্দ রাষ্ট্রপতি এবং সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতিকে পূর্বেই সিএএ প্রত্যাহার করার বিষয়ে স্মারকলিপি পেশ করেছে। জাতীয় পর্যায়ের এই আন্দোলন ভারতবর্ষের সংবিধান এবং তার প্রাণ বাঁচানোর আন্দোলন। সাথে সাথে আমি (আচার্য) ব্যক্তিগতভাবে এটাকেও একপর্যায়ের সফলতা মনে করছি যে, সরকার এই বিষয়ে কিছুদিন আগ পর্যন্ত এক ইঞ্চি সরে আসার জন্য প্রস্তুত ছিল না, অথচ এখন এনআরসির বিষয়ে সুর নরম করতে বাধ্য হয়েছে।

নিঃসন্দেহে পুরোপুরি আশ্বস্ত না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন এবং অবস্থানবিক্ষোভ সমাপ্ত করার কোনও আবেদন করা যেতে পারে না। আমার যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, দেওবন্দের উচ্চপদস্থ পুলিশ অফিসারদের সাথে দেওবন্দ শহরে শান্তি ও সম্প্রীতি বজায় রাখার বিষয়ে একটি আলোচনা সভা পর্যন্ত তার ব্যাপ্তি।যেখানে নিজস্ব আলাপচারিতায় বলা আমার কথাকে এই বার্তায় পরিণত করা যে, দারুল উলুম দেওবন্দ মহিলাদের আন্দোলনকে সমাপ্ত করে দেওয়ার আবেদন করেছে, সম্পূর্ণ ভুল এবং এর কোনও ভিত্তি নেই। আমার বক্তব্য ভুলভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। এখানে এটা স্পষ্ট করা হচ্ছে যে, দারুল উলূম দেওবন্দ আন্দোলন এবং প্রদর্শন শেষ করার কোনওরকম আবেদন করেনি। আমরা সমস্ত আন্দোলনকারীদের জন্য প্রার্থনা করি এবং তাদের সফলতার প্রত্যাশা রাখি।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন