রাজবাড়ীতে রাতে ঘুমন্ত ইমামকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে জখম

0
516

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে গভীর রাতে ঘুমন্ত ইমামকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। সজিব (১৮) নামে মসজিদের এক ইমামকে রাকিব শেখ (১৮) নামে এক কিশোরের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ পাওয়া গেছে। রোববার দিবাগত রাতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত ইমাম গোয়ালন্দ উপজেলার উজানচর ইউনিয়নের রমজান মাতুব্বর পাড়ার মো: সিরাজ সরদারের ছেলে। রাকিবুল একই এলাকার মৃত আ: কুদ্দুস শেখের ছেলে। জানা যায়, সজিব গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া মাদ্রাসাতুল সাবি-ইল হাসানের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

মসজিদের পাশেই তৈরি একটি টিনের ছাপড়া ঘরে তিনি থাকেন। প্রতিদিনের ন্যায় রোববার রাতে এশার নামাজ শেষে খাবার খেয়ে ওই ঘরেই ঘুমিয়ে ছিলেন তিনি। রাত ২টার দিকে রাকিবুল টিনের বেড়া কেটে ইমাম সাহেবের রুমে ঢুকে ধরালো দা দিয়ে মাথা-ঘাড়-কপালসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে জখম করে।

এক পর্যায় তাকে মৃত ভেবে রাকিবুল পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা ইমাম সাহেবের গোঙানী শুনে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে গোয়ালন্দ উপজেলা কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি করে। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাৎক্ষনিক তাকে ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। বর্তমানে তিনি সেখানেই চিকিৎসাধীন আছেন।

ইমাম সাহেবকে কুপিয়ে জখম করার কারণ এখনো জানা যায়নি। তবে ইমাম সাহেবের মামা রইচ উদ্দিন জানান, কয়েকদিন আগে সজিবের ৭ম শ্রেনীতে পড়ুয়া বোনকে বিবাহ করার জন্য সজিবের কাছে প্রস্তাব দেয় রাকিব। সজিব সেই প্রস্তাবে রাজি না হয়ে বরং তার  বোনকে বিয়ে করার প্রস্তাব না দেয়ার জন্য রাকিবকে সাবধান করেন। এ কারণে তার সাথে দ্বন্দ্ব হতে পারে বা আক্রোশ থাকতে পারে বলে তিনি ধারণা করেন।

 

 

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন