দেশের কঠিন মুহূর্তেও সন্ত্রাসী আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত ২৫

0
129

মাদারীপুর সদর উপজেলার পেয়ারপুর ইউনিয়নে এলাকার বরাইলবাড়ী গ্রামে এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সদর উপজেলা সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও পেয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খানের সঙ্গে সদর উপজেলা সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক লাভলু তালুকদার গ্রম্নপের মধ্যে সোমবার সকালে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৫ পুলিশসহ আহত হয়েছে অন্তত ২৫ জন। গুরুতর আহতরা মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

যায়যায়দিন সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে এলাকার আধিপত্য নিয়ে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পেয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমানের সঙ্গে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক লাভলু তালুকদারের বিরোধ চলে আসছিল। এরই সূত্রে ধরে ও গরুতে ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে সোমবার সকালে দুই গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বাধে। এ সময় বেশ কয়েকটি ঘরবাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এ সময় ৫ পুলিশ সদস্য এবং দুই গ্রুপের আরও ২০ জন আহত হয়।সংঘর্ষে আহতরা মাদারীপুর সদর হাসপাতালসহ আশপাশের হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

সদর উপজেলা সন্ত্রাসী আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও পেয়ারপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খানের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগে চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।

সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ দপ্তর সম্পাদক লাভলু তালুকদার বলেন, মজিবর খান ও তার ভাইরা এলাকায় সন্ত্রাসী কার্যক্রমে লিপ্ত থাকে। সামান্য বিষয় নিয়ে এ সংঘর্ষে লিপ্ত হয় সে এবং তার লোকজন। সংঘর্ষে প্রায় ১০ জন আহত হয়েছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন