বাংলাদেশের ‘কারা দ্বীপে’ পাঠানো হলো আরো রোহিঙ্গাদের

1
287
বাংলাদেশের ‘কারা দ্বীপে’ পাঠানো হলো আরো রোহিঙ্গাদের

শুক্রবার ২৮০ জন রোহিঙ্গাকে ভাসানচর নামক বঙ্গোপসাগরের একটি জনমানবহীন বিচ্ছিন্ন দ্বীপে পাঠিয়েছে বাংলাদেশ৷ তারা বেশ কয়েক সপ্তাহ সাগরে ভাসছিলো। পরে সমুদ্রে ভাসমান নৌকা থেকে নৌবাহিনী তাদেরকে আটক করে।

জানা গেছে, নৌবাহিনী ২৮০ জন রোহিঙ্গাকে বহনকারী নৌকাটি আটক করে৷ নারী, শিশুসহ তাদের সবাইকেই ভাসানচরে স্থানান্তর করা হয়েছে৷
এখন তাদেরকে ১৪ দিন হোম কোয়ারান্টিনে রাখার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে৷ পরবর্তী সিদ্ধান্ত সরকার নিবে বলে জানিয়েছেন তিনি৷

এর আগে গত দুই এপ্রিল ২৯ জন রোহিঙ্গাকে কক্সবাজার শহরের বাঁকখালী নদীর তীরবর্তী নুনিয়াছড়া প্যারাবন থেকে উদ্ধার করে পুলিশ৷ তাদের উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে সাগর পথে ট্রলারে করে মালয়েশিয়া নেওয়ার কথা বলে কক্সবাজার নুনিয়াছড়া এলাকায় নামিয়ে দেয় দালাল চক্র৷ উদ্ধারের পর তাদেরকেও নৌবাহিনীর কোস্টগার্ডের সহায়তায় ভাসানচরে পাঠানো হয়৷

সেই সময় ত্রাণ ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান বলেছিলেন, সরকারের নির্দেশনা হলো ক্যাম্পের বাইরে যাদেরই ডিটেক্ট করা হবে তাদেরই ভাসানচরে পাঠানো হবে৷ সেখানে তারা সরকারি ব্যবস্থাপনায়ই থাকবে৷ সংখ্যা বাড়লে তখন আমরা আন্তর্জাতিক সংস্থার সাথে কথা বলবো৷

তবে শুরু থেকেই রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানোর ব্যাপারে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলো বিরোধিতা করে আসছিলো৷ এক পর্যায়ে রোহিঙ্গাদের সেখানে পাঠানোর পরিকল্পনা বাদ দেয় সরকার৷ তবে সাগর থেকে উদ্ধারকৃতদের এখন সেখানে পাঠানো শুরু করেছে সরকার৷

সূত্র: দি গার্ডিয়ান ও নিউজ এজেন্সি

১টি মন্তব্য

  1. বাংলাদেশে মুসলিমদের হঠাৎ রোহিঙ্গাবিদ্বেষ জেগে উঠার পিছনে একটা বিশ্লেষণ মুলক পোস্ট চাই। অধিকাংশ বাঙ্গালি মুসলিম এখন রোহিঙ্গাদের দেখতে পারে না।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন