ফিলিস্তিনিদের কবরস্থান ধ্বংস করে শপিংমল তৈরি করছে ইসরাইল

0
957
ফিলিস্তিনিদের কবরস্থান ধ্বংস করে শপিংমল তৈরি করছে ইসরাইল

তেল আবিবের জাফা পৌরসভা কর্তৃক আঠার শতকের ঐতিহাসিক আল-ইসাফ মুসলিম কবরস্থান ধ্বংস করে শপিংমল ও আশ্রয়কেন্দ্র নির্মানের প্রতিবাদে বন্দর নগরী জাফায় টানা ষষ্ঠ দিন ধরে প্রতিবাদ করছে ফিলিস্তিনিরা।

নতুন ভবন নির্মানের সূচনা হিসেবে সোমবার থেকে ইসরাইলি বুলডোজার করস্থান ধ্বংস করা শুরু করেছে। ১৯৪৮ সালের আগে ইসরাইল কর্তৃক জাফা শহর দখলের পূর্বে শতশত ফিলিস্তিনি মুসলিমকে সেখানে কবরস্থ করা হয়। এর প্রতিবাদে তেল আবিবের পৌরসভা জোট থেকে জাফা বেরিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছে।

ইয়াফা শহরের উত্তরে অবস্থিত এই মুসলিম কবরস্থান ধ্বংসের প্রতিবাদে শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর বিপুল মুসলিম পদযাত্রা শুরু করে। খবর নয়া দিগন্তের

আল-আকসা মসজিদের ইমাম শায়েখ ইকরামা সাবরি ওই কবরস্থানে মুসল্লিদের নিয়ে জুম্মা আদায় করেন। জুম্মার খুতবায় তিনি অভিযোগ করেন, ইসলামের ঐতিহাসিক এই কবরস্থানসহ মুসলমানদের ঐতিহাসিক স্থাপনাগুলো ধ্বংস করছে ইসরাইল। মৃতদের জন্য কবরস্থানের জমি রক্ষা করা আমাদের নৈতিক অধিকার।

এর আগে সাবরিকে আল-আকসা মসজিদে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ইরসাইল।

নেসেট সদস্য সামি আবু শেহাদেহ জেফার আন্দোলনরত জনগণের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন। তেল আবিব/ জাফা পৌরসভার জোট থেকে সরে আসার সাহসী পদক্ষেপের জন্য জাফাকে স্বাগত জানিয়ে সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্টও দিয়েছেন তিনি।

আবু শেহাদেহ বলেন, ‘জাফায় আমাদের পবিত্র স্থান রক্ষা করা কেবল একটি অধিকারই নয় বরং একটি দায়িত্বও। কবরস্থান ধ্বংস করার মাধ্যমে ইসরাইল জোট চুক্তির সেই ধারাটিকে লঙ্ঘন করেছে।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন