শাম | ড্রোন হামলায় শাহাদাত বরণ করলেন আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি রহ.

2
557
শাম | ড্রোন হামলায় শাহাদাত বরণ করলেন আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি রহ.

সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিবে ড্রোন (চালকবিহীন বিমান) হামলায় শাহাদাত বরণ করলেন আল-কায়েদা সিরিয়ান শাখা তানযিম হুররাস আদ-দ্বীনের শীর্ষস্থানীয় একজন দায়িত্বশীল।

সিরিয়া ভিত্তিক একাধিক সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, সুন্নি মুসলিমদের দখলে থাকা সিরিয়ার উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় ইদলিব প্রদেশে গত সোমবার একটি গাড়ি লক্ষ্য করে এ ড্রোন হামলা চালানো হয়। পরবর্তীতে জানা যায় যে, ড্রোন হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হওয়া গাড়িটি ছিলো শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি (রহিমাহুল্লাহ) এর। আর শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি (রহ.) ছিলেন আল-কায়েদা সিরিয়ান ভিত্তিক শাখা তানযিম হুররাস আদ-দ্বীনের শীর্ষস্থানীয় উমারাদের মধ্যহতে একজন। যার হাত ধরে বিজয় হয়েছিলো শামের অনেক শহর ও শহরতলি। অবশেষে তাঁর গাড়ি লক্ষ্য করে পরিচালিত উক্ত ড্রোন হামলায় তিনি শাহাদাত বরণ করেন। ধারণা করা হচ্ছে ক্রুসেডার মার্কিন বাহিনী এই ড্রোন হামলা চালিয়েছে।

এদিকে আল-কায়েদা সমর্থিত সিরিয়ান ভিত্তিক গণমাধ্যমগুলো দাবি করছে, এটা নিছক কোন ঘটনা নয়, কারণ শামের জিহাদকে বিতর্কিত করতে গাদ্দার দলগুলো শাইখকে বন্দী করার জন্য দীর্ঘদিন চেষ্টা চালিয়ে আসছিলো, কিন্তু তারা তাতে সফল হয়নি, ধারণা করা হচ্ছে এসকল গাদ্দারদের সহযোগিতায় শাইখের উপর এই ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে। কেননা ইতিপূর্বেও এধরণের অনেক ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে সিরিয়ায় আন্তর্জাতিক জিহাদি সংগঠন আল-কায়েদার অনুগত অনেকগুলো সংগঠন রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে তুলনামূলক ছোট কিন্তু খুবই প্রভাবশালী একটি সংগঠন হচ্ছে তানযিম হুররাস আদ-দ্বীন। বর্তমানে দলটি ছোট হলেও ক্রুসেডার ও মুরতাদ বাহিনীর পাশাপাশি সিরিয়ার সর্ববৃহৎ বিদ্রোহী গ্রুপ হায়াত তাহরির আশ-শামও দলটিকে নিজেদের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বী দল মনে করছে। দলটি একসময় আল-কায়েদার সাবেক সিরীয় শাখা জাবাত আল-নুসরা হলেও পরবর্তিতে দলটির মাঝে বড়ধরণের পদস্খলন দেখা দিলে দলটি থেকে পৃথক হতে থাকে জাবাত আল-নুসরার সত্যিকারের অনুসারীরা। এরপর তাঁরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে গঠন করেন তানযিম হুররাস আদ-দ্বীন এবং ওয়া হাররিদীল মু’মিনিন অপারেশন রুম।

উল্লেখ্য যে, শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি (রহ.)ও আল-নুসরার একজন শীর্ষস্থানীয় সাবেক নেতা ছিলেন। শাইখ ছিলেন তিউনিসিয়ান একজন নাগরিক। যে ড্রোন হামলায় তিনি শাহাদাত বরণ করেছেন, সেটির বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করেনি যুক্তরাষ্ট্র বা অন্য কোন দেশ বা দল।

এদিকে অবজারভেটরির নেতা রামি আবদেল রহমান বলেছে, শাইখ সাইয়াফ আত-তিউনিসি (রহ.) এর গাড়িটা ঘায়েল হয়েছে ‘নিনজা’ R9X নামে পরিচিত একটি ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাতে। এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের মাথায় বিস্ফোরকের পরিবর্তে অনেকগুলো ব্লেড ব্যবহার করা হয়। যা ‘সমান্তরাল ক্ষতি’ কমিয়ে আনে। সিরিয়ায় মুজাহিদদের বিরুদ্ধে বিমান হামলায় এর আগেও R9X ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে ক্রুসেডার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

IMG-20200916-193152-342

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন