১৮ বছর পর ইসরায়েলি কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া স্বামীকে দেখে আবেগে আত্মহারা স্ত্রী

0
938
১৮ বছর পর ইসরায়েলি কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়া স্বামীকে দেখে আবেগে আত্মহারা স্ত্রী

বিয়ের মাত্র তিনমাসের মাথায় আটক হয়ে দীর্ঘ ১৮ বছর পর ইহুদি সন্ত্রাসীদের অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলের কারাগার থেকে মুক্তি পেলেন ফিলিস্তিনের আব্দুল করিম মুখদার নামে এক ব্যাক্তি।

গতো ২৮ সেপ্টেম্বর আব্দুল করিম ইসরায়েলি কারাগার থেকে মুক্তি পাওয়ার পর জেনিন শহরের জালামা চেকপয়েন্টে ফুলের তোড়া হাতে স্বামীকে অভ্যর্থনা জানাতে আসেন তার স্ত্রী জিনান। এসময় সেখানে এক আবেগঘন পরিবেশ সৃষ্টি হয়। স্ত্রী গাড়ি থেকে নেমেই দৌড় দিয়ে স্বামীর দিকে এগিয়ে যায় আর স্বামীও দৌড়ে এসে পরম আবেগে স্ত্রীকে জড়িয়ে ধরেন। দীর্ঘসময় পর একে অপরকে কাছে পেয়ে আবেগে আত্মহারা হয়ে যান তারা।

গতো ২০০২ সালের জুন মাসে ৩১ বছর বয়সী যুবক আব্দুল করিমের সাথে পারিবারিক ভাবে বিয়ে হয় ২৬ বছর বয়সী জিনান সামারা’র। এরপর বিয়ের মাত্র তিনমাসের মাথায় একই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ইসরায়েল বিরোধী কর্মকান্ড পরিচালনার অভিযোগে আব্দুল করিমকে ধরে নিয়ে যায় ইসরায়েলি বাহিনী। এরপর থেকে স্বামীর মুক্তির জন্য প্রহর গুনছিলো স্ত্রী। অবশেষে দীর্ঘ ১৮ বছর পর স্বামী মুক্তি পাওয়ায় বাকি জীবন একসাথে কাটানোর সুযোগ পেলেন তারা।

আব্দুল করিমের স্ত্রী জিনান বলেন, আমি আল-কুদস ওপেন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পাস করার দু’বছর পর ২০০২ সালের জুন মাসে আবদুল করিম মুখদারের সাথে পারিবারিক ভাবে আমার বিয়ে হয়। এরপর সেপ্টেম্বর মাসে ইসরায়েল বিরোধী কর্মকান্ড পরিচালনার অভিযোগে আমার স্বামীকে ধরে নিয়ে যায় ঘৃণ্য ইহুদি বাহিনী। পরবর্তীতে তাকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। এরপর থেকে আমি কোনদিন স্বামীর হাত ধরতে পারিনি। ইসরায়েলি কারাগারে মাসে একবার ৪৫ মিনিটের জন্য স্বামীর সাথে আমার সাক্ষাৎ হতো। আমাদের মাঝখানে কাচের দেওয়াল থাকায় আমরা ফোনে কিছু কথা বলতাম। আমরা দু’জনেই হাত নাড়াতাম কিন্তু একজন আরেকজনকে স্পর্শ করতে পারতাম না।

সূত্র: মিডলইস্ট মনিটর।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন