বৃদ্ধ মুসলিমকে উলঙ্গ করে পিটিয়ে নগদ অর্থ ও বিয়ের উপঢৌকন ছিনিয়ে নিয়েছে উগ্র হিন্দুরা

2
598
বৃদ্ধ মুসলিমকে উলঙ্গ করে পিটিয়ে নগদ অর্থ ও বিয়ের উপঢৌকন ছিনিয়ে নিয়েছে উগ্র হিন্দুরা

ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা একজন বৃদ্ধ মুসলিমকে উলঙ্গ করে নির্মমভাবে পিটিয়ে তার কাছে থেকে ছিনিয়ে নিয়েছে নগদ অর্থ ও বিয়ের মূল্যবান উপঢৌকন।

ভারতের উত্তরপ্রদেশে দিল্লী সীমান্তবর্তী নইদা শহরে কাজিম আহমেদ (৬২) নামে এক বৃদ্ধ মুসলিম আলিগড়ে তার ভাতিজির বিয়েতে যাওয়ার পথে তিন উগ্র হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসী কর্তৃক হামলার শিকার হয়েছেন।

জানা যায় রাজধানী দিল্লীর জাকির নগরের প্রবীণ বাসিন্দা কাজিম গত ৪ জুলাই সকালে বর্বর হিন্দুদের নৃশংস হামলার সম্মুখীন হন।

হামলায় গুরুতরভাবে আহত কাজিম জানান,”মুসলিম পরিচয়ের কারণে দুষ্কৃতকারীরা মুসলিম বিদ্বেষী স্লোগান দিয়ে তাঁর উপর ঝাপিয়ে পড়ে।”

তিনি বলেন,”আলিগড়ে বিয়ের অনুষ্ঠানে যেতে যখন আমি ৩৭ নং সেক্টরে বাসের জন্য অপেক্ষা করছিলাম, সাদা রঙের গাড়ি থেকে কিছু হিন্দু সন্ত্রাসীরা তখন আমাকে তাদের দিকে ডাকে। যখন আমি তাদের নিকট যাই, তারা আমাকে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে জানালাগুলো বন্ধ করে দেয়। তারপর আমাকে বেদম পেটাতে শুরু করে।”

আহত কাজিম তখন জীবন রক্ষার জন্য হিন্দু সন্ত্রাসীদের নিকট অনুনয় বিনয় করেন, কিন্তু তবুও তারা তার উপর প্রহার চালিয়ে যায়।

তিনি সংবাদমাধ্যমকে জানান,”উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা আমার পাজামা খুলে ফেলে, ক্রু ড্রাইভার দিয়ে নাক বরাবর সজোরে আঘাত করে । সেইসাথে আমার টাকাকড়িসহ ভাতিজির বিয়ের মূল্যবান উপহার ও চশমা ছিনিয়ে নেয়। তারা আমার সুন্নতি দাড়ি নিয়ে টানাটানি করে এবং তাদের পরিধেয় গামছা দিয়ে আমাকে শ্বাসরোধের চেষ্টা করে। এরপর উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা আমাবে বেদম পিটিয়ে অজ্ঞান অবস্থায় রাস্তায় ফেলে যায়।”

কাজিম জানান, মালাউন হিন্দুদের কর্তৃক এটা তার উপর প্রথমবারের মতো আক্রমণ নয়। “মুসলিম পরিচয়ের কারণে গত বছর ট্রেনে আলিগড় যাওয়ার পথে আমি পূর্বেও গেরুয়া সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়েছি।”

কাজিমের ছেলে আরহাম (২০) সাম্প্রতিক সময়ে চিরাচরিত রূপ নেয়া বিপদে পড়ার ভয়ে ও হিন্দুত্ববাদী প্রশাসনের টার্গেট হওয়ার আশংকায় সাংবাদিকদের নিকট মুখ খুলেননি।

2 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন