টিটিপির উত্তর জোনের সমস্ত বিভাগ পরিদর্শন করেছেন আমীর মুফতী নূর ওয়ালি মেহসুদ

1
1469
টিটিপির উত্তর জোনের সমস্ত বিভাগ পরিদর্শন করেছেন আমীর মুফতী নূর ওয়ালি মেহসুদ
সুবিধামত ফন্ট ছোট বড় করুনঃ

পাকিস্তানের কুফরি সংবিধানকে হটিয়ে ইসলামিক শরিয়াহ্ ব্যাবস্থা ফিরিয়ে আনতে যে কয়েকটি দল কাজ করে যাচ্ছে, তাদের মাঝে অন্যতম ও সর্ববৃহৎ হচ্ছে তেহরিক-ই-তালিবান পাকিস্তান। যারা এই বরকতময় কাজের জন্য বেঁচে নিয়েছেন নববী মানহায অনুসারে সশস্ত্র জিহাদের পথকে।

তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান দীর্যদিন ধরে ইসলামিক শরিয়াহ্ ব্যাবস্থা ফিরিয়ে আনতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাচ্ছে। নিজেদের মধ্যকার ঐক্যকে আরও দৃঢ় করতে এবং অঞ্চল ভিত্তিক কার্যক্রমের খোঁজখবর নিতে গেলো গত সপ্তাহে, পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চল সফল করেছেন (টিটিপি) আমির আবু আসিম মনসুর বা মুফতি নূর ওয়ালি মেহসুদ হাফিজুল্লাহ। পাক-তালিবান সূত্র নিশ্চিত করেছে যে, তিনি এক সপ্তাহ ধরে টিটিপির উত্তর জোনের সমস্ত বিভাগ পরিদর্শন করেছেন।

সূত্রটি আরও জানিয়েছে যে, এই সফর ও পরিদর্শনকালে, মুফতি সাহেব দলটির সকল বিভাগের বিভাগীয় ও জেলা প্রধানদের সাথে দেখা করেছেন, তাদের উদ্বেগের কথা শুনেছেন।

সেই সাথে যারা বরকতময় এই জিহাদী কার্যক্রম পরিচালনা করতে দৃঢ়তা, ধর্যের পরিচয় দিচ্ছেন, যারা মহান এই কাজ আঞ্জাম দিতে গিয়ে কষ্ট ক্লেশ ও দুর্ভোগ সহ্য করে যাচ্ছেন, সেসবের জন্য তিনি তাঁদের প্রশংসা করেন। একই সাথে, তিনি শহীদদের প্রতি সমবেদনা জানান এবং তাঁদের পরিবারের সাথে সাক্ষাত করেন।

আমীর মুফতী নুর ওয়ালী হাফিজাহুল্লাহ্’র এই সফরের সময় সমস্ত বিভাগের কর্মকর্তারা বৈঠক করেন, যেখানে কেন্দ্রীয় ও জেলা কর্মকর্তারা নিজেদের বক্তব্য পেশ করেন এবং ঐক্য ও সম্প্রীতি বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি দেন। তাঁরা আমীর মুহতারমাকে তাঁর সফরের জন্য উষ্ণ স্বাগত জানান এবং তাঁর জন্য আমন্ত্রণের ব্যবস্থাও করেন।

আমীর মুহতারাম মুফতী নুর ওয়ালী মেহসুদ হাফিজাহুল্লাহ্’র এই সফরের ফলে দলটির সদস্যদের মাঝে আনন্দ ছড়িয়ে পড়ে, তাঁরা নিজেদের খুশির কথাও প্রকাশ করেন এবং সম্মানীত আমীরের প্রতি নিজেদের আনুগত্য ঘোষণা করেন।

টিটিপির অফিসিয়াল ওমর মিডিয়া এই সফরের মোহনীয় বেশ কিছু দৃশ্য ধারণ করেছে। যার ভিডিও প্রতিবেদন শীঘ্রই প্রকাশ করা হবে বলেও জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ২০১৩ সালের পর টিটিপি তাদের অভিযান কিছুটা কমিয়ে আনলেও, গত বছর থেকে তারা পূনরায় পাকিস্তানের গাদ্দার সামরিক বাহিনীর উপর হামলার তীব্রতা বাড়িয়েছেন। সেই সাথে ছোট-বড় ১০ টি জিহাদী গ্রুপও টিটিপির সাথে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। যা পাকিস্তানের গাদ্দার সামরিক বাহিনীর জন্য রীতিমত ভয় ও আতংকের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। আর এমন পরিস্থিতিতে টিটিপির আমীরের প্রকাশ্যে উত্তরাঞ্চল সফর দেশটির সামরিক বাহিনীর জন্য আরও ভয়ের কারণ হয়ে দাড়িয়েছে। কেননা পাক-তালিবান এসবের মাধ্যমে নিজেদের জনসমর্থন, সামরিক শক্তি ও ঐক্যের জানান দিচ্ছে।

 

 

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধআশ-শাবাবের হামলায় সোমালিয়ার ৮ এরও বেশি গাদ্দার সেনা নিহত, আহত অন্যরা
পরবর্তী নিবন্ধপাকিস্তান | সামরিক ঘাঁটিতে পাক-তালিবানের মিসাইল হামলা