সৌদি আরবে কেন নিষিদ্ধ করা হলো তাবলিগ?

সাইফুল ইসলাম

1
2156

সৌদি আরবের কুখ্যাত শাসকগোষ্ঠী ‘ভিশন ২০৩০’ নামে একটি লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে। রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পবিত্র ভূমিকে অপবিত্র করার মিশন এটি। আর সেই মিশনের কুপ্রভাবকে আরও কার্যকর করতে বৈশ্বিক দাওয়াহভিত্তিক সংগঠন ‘তাবলীগ’ ও অন্যান্য ইসলাম প্রচারকারী সংগঠনকে সৌদি আরবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে পশ্চিমাদের দালাল আলে সৌদ শাসকগোষ্ঠী।

৬ই ডিসেম্বর সোমবার আলে সৌদ সরকারের কথিত ইসলাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের এক টুইট বার্তায় জানানো হয় যে, সৌদি আরবে তাবলিগ ও ‘দাওয়াহ’ গ্রুপের সঙ্গে সম্পৃক্ততা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে জুমুআর খুতবায় যেন আলোচনা করা হয়।

টুইটটিতে তাবলিগ জামাআতকে আমেরিকার সুরে সুর মিলিয়ে ‘সন্ত্রাসবাদ’-এর কেন্দ্র এবং সমাজের জন্য ক্ষতিকর বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

আমেরিকার গোলাম আলে সৌদ সরকার যখন পবিত্র ভূমিতে বেহায়াপনা ছড়াতে হলিউড-বলিউডের নায়ক-নায়িকাদের দিয়ে অশ্লীলতার কনসার্ট করে, অর্ধনগ্ন নারীদের নাচায়, এদের দৃষ্টিতে এগুলো সমাজের জন্য ক্ষতিকর হয় না। বরং তাদের মত- মুসলিম সমাজ নাকি এসব নোংরামির চর্চা করলে আধুনিক হয়।
আর তাবলিগ জামাতের মতো ইসলাম প্রচারকারী দলগুলো যখন মুসলিম যুবক-যুবতীদেরকে ইসলামের পথে আহ্বান করেন, তখন সেটা তাদের দৃষ্টিতে সমাজের জন্য ক্ষতিকর।

পশ্চিমাদের এই দালালরা মূলত আমাদের প্রিয় নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পবিত্র ভূমিকে অপবিত্র করার ‘ভিশন ২০৩০’ এর যে মিশন নিয়ে নেমেছে, তা সফল করতে পথের সব কাঁটা দূর করতে চায়। আর যেহেতু ইসলাম প্রচারকারী ব্যক্তি ও সংগঠনগুলোই তাদের পথে কাঁটা হয়ে রয়েছে, এজন্যই জালিম আলে সৌদ সরকার বিগত বছরগুলোতে হক্বপন্থী বহু উলামায়ে কেরামকে কারাগারে বন্দী করেছে এবং আমেরিকার সুরে সুর মিলিয়ে ‘সন্ত্রাসবাদের’ মিথ্যা অভিযোগ তুলে বহু ইসলামি সংগঠনকে নিষিদ্ধ করেছে।

আর এখন তারা তাবলীগ-জামাতের মতো সংগঠনকেও নিষিদ্ধ করলো, যারা তাদের ভাষায় অহিংস হিসেবে পরিচিত ছিল এতদিন। উলামায়ে হক্কানী তাই বলছেন যে, ইহুদি-খ্রিস্টান জোটের পদলেহন করতে করতে এই আলে-সৌদ প্রশাসন এতটাই ইসলামবিদ্বেষী হয়ে উঠেছে যে, ইসলামের সামান্য নিশানাটুকুও এখন আর সহ্য করতে পারছে না।

ইসলামের বিরুদ্ধে আলে সৌদ সরকারের এই ভয়াবহ চক্রান্তের ব্যাপারে সারাবিশ্বের মুসলিম জনসাধারণ ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। এই ক্ষোভ যখন বিদ্রোহের রূপ নেবে তখনই হয়তো টনক নড়বে পশ্চিমাদের দালাল এই শাসকগোষ্ঠীর, আর আশা পূরণ হবে ইহুদি-খ্রিস্টান জোটের।

তথ্যসূত্র:
—–
১. আলে সৌদ সরকারের ইসলামি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের টুইট লিংক:
https://bit.ly/3m0r9nd
২. Indian superstar Salman Khan’s Da-Bangg tour to dazzle Riyadh Season, 10 December 2021, Arab News; https://bit.ly/33iFSDv
৩. Justin Bieber Goes Ahead With Saudi Arabia Concert After Calls to Boycott, 6 December 2021, billboard; https://bit.ly/3pU7GFW

১টি মন্তব্য

  1. যার যতটুকু ভুল ততটুকুই বলি, বেশি নয় …

    সৌদির সিদ্ধান্ত অনেক বড় জুলুম এবং ষড়যন্ত্র …

    বিশ্বব্যাপী ধর্মবিমুখ মুসলিমদের ধর্মমুখী করা ও প্রাথমিক সংশোধন করাই তাবলীগ জামাতের লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য। এই জন্য ভিন্ন বিষয়ে কথা বলা, আলোচনা করা এর সিলেবাসে নিষিদ্ধ। হ্যাঁ পরে নিজে নিজে জেনে নেওয়া আরো জ্ঞান অর্জন করা সবার দায়িত্ব। যারা তা করবে না, তারা নিজ নিজ অবহেলা অনুপাতে গুনাহগার হবে। কিন্তু এজন্য এই কোর্স কে দায়ী করার সুযোগ নেই। কোটি কোটি মানুষ এই কোর্সের মাধ্যমে আখেরাতমুখী হয়েছে। এর অবদান হিংসুক ও বিভ্রান্তরাই অস্বীকার করবে।

    আরো দেখতে পারেন
    ঈমানের মেহনত বনাম জিহাদ

    https://82.221.139.217/showthread.php?23177

    https://justpaste.it/4nzoq

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন