প্রতিবাদকারীদের দোষী সাবস্ত করতে, দিল্লিতে বাসে আগুন ধরিছে মালাউন সন্ত্রাসী পুলিশরাই!

0
673
প্রতিবাদকারীদের দোষী সাবস্ত করতে, দিল্লিতে বাসে আগুন ধরিছে মালাউন সন্ত্রাসী পুলিশরাই!

 নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদের এই মুহূর্তে উত্তাল ভারতের বিভিন্ন রাজ্য। এরই মধ্যে দেশটির মালাউন সন্ত্রাসী পুলিশের বিরুদ্ধে এক গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।

দেশটির সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দিল্লিতে ছাত্র-পুলিশ সংঘর্ষ চলাকালীন পরিস্থিতি যাতে আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে সেই জন্যে কিছু বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে পুলিশই, এমন চাঞ্চল্যকর অভিযোগ উঠে আসছে।

বাসে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে পুলিশ, এমন দাবির পক্ষে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, একটি বাসে কেরোসিনের জার থেকে তেল ছিটিয়ে দিচ্ছে দেশটির পুলিশ সন্ত্রাসীরাই।

 

রবিবার সন্ধ্যা নাগাদ দেশটির রাজধানী দিল্লি বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে। দক্ষিণ দিল্লির নিউ ফ্রেন্ডস কলোনি অঞ্চলে নতুন নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতাকারী সহিংস বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ বাঁধলে এলাকাটি রণক্ষেত্রে পরিণত হয়।

এরই মাঝে পুলিশের বাসে আগুন দেয়ার ভিডিও দেশটির সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়। ওই ভিডিওতে দেখা যায়, একজন পুলিশ সন্ত্রাসী নিজেই একটি ফাঁকা বাসে কেরোসিনের জার থেকে কোনও তরল ছুঁড়ছে।

 

ভিডিওতে আরো দেখা যায়, বেশ কয়েকটি বাস ও দু’চাকার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনার বিষয়ে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়াসহ অনেকেই অভিযোগ করছে, পুলিশেরই কিছু সন্ত্রাসী এই ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে।

 

দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া এক টুইট বার্তায় লিখেছে, এই ছবিটি দেখুন … দেখুন কে বা কারা বাসে এবং গাড়িতে আগুন দিচ্ছে … এই ছবিটি সন্ত্রাসী দল বিজেপির করুণ রাজনীতির সবচেয়ে বড় প্রমাণ … বিজেপি সন্ত্রাসীরা এর প্রতিক্রিয়ায় কী বলবে?

 

#Breaking: जामिया इलाके में हिंसक हुआ विरोध, बसों में आग लगाई गईपुलिस के साथ भिड़ंत, लाठीचार्ज और आंसू गैस के गोले छोड़े गए #CitizenshipAmendmentAct. pic.twitter.com/ewDJoLc9DZ

— NBT Dilli (@NBTDilli) December 15, 2019

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন