আল-কায়েদার হামলায় নাস্তানাবুদ সোমালি গোয়েন্দা সংস্থা ‘এনআইএসএ’

0
922
আল-কায়েদার হামলায় নাস্তানাবুদ সোমালি গোয়েন্দা সংস্থা ‘এনআইএসএ’

আল-কায়েদা পূর্ব আফ্রিকা শাখা হারাকাতুশ শাবাবের একের পর এক সফল হামলায় ভেঙে পড়েছে সোমালিয়ার জাতীয় গোয়েন্দা ও সুরক্ষা সংস্থা (এনআইএসএ) এর নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

গত মঙ্গলবার সোমালিয়ার রাজধানী মোগাদিশুতে আল শাবাব মুজাহিদিনরা দেশটির জাতীয় গোয়েন্দা ও সুরক্ষা সংস্থা (এনআইএসএ) এর এক আন্ডারকভার অফিসার ও অন্য এক গোয়েন্দা সদস্যকে গুলি করে হত্যা করেছেন।

স্থানীয়রা জানান শাবাব যোদ্ধারা গুলি চালানোর ঠিক কিছু সময় পরে নির্ভয়ে পায়ে হেঁটে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। যেন মনে হচ্ছিল রাজধানী মোগাদিশু তাদেরই নিয়ন্ত্রিত কোন অঞ্চল। শাবাব যোদ্ধারা চলে যাওর পরে দেশটির মুরতাদ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে এবং লোক দেখানো এলাকা ঘেরাও করে।

আল-কায়েদা সংযুক্ত সশস্ত্র দল আল শাবাব এই হত্যার দায় স্বীকার করেছে, এবং শাবাব সমর্থক ওয়েবসাইট ‘সোমালি মেমো’ এক বিবৃতিতে মৃত গোয়েন্দা অফিসারকে শনাক্ত করেছে “কাগাওয়াইন” নামে।

একই রাতে হারাকাতুশ শাবাব মুজাহিদিন আরো এক গোয়েন্দা কর্মকর্তাকে হত্যার কৃতিত্ব অর্জন করেন, সেেই হামলাটি চালানো হয় রাজধানী মোগাদিশুরই পশ্চিমে অবস্থিত লাফুল এলাকায়।

মঙ্গলবার রাতে মোগাদিশুতে এই হত্যাকাণ্ডের আগে আশ শাবাব মুজাহিদিন কীভাবে গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের পরিচয় এবং সন্ধান করতে সক্ষম হয়েছিল তা এখনো পরিষ্কার নয়, যার ফলে প্রতিটি  ‍মূহুর্তেই আতংকে দিন কাটাচ্ছে সোমালীয় গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা।

অতীতেও আশ শাবাব মুজাহিদিন সোমালিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যদের লক্ষ্য করে অসংখ্য হামলা চালিয়ে ডজনকে ডজন গোয়েন্দা সদস্যকে হত্যা করেছেন। আশ-শাবাবের এসব টার্গেটকৃত হামলা থেকে বাদ পড়েনি সিনিয়র কমান্ডার, অফিসার থেকে নিয়ে নিম্ন স্তরের গোয়েন্দা কর্মকর্তারাও। এসব কারণে পুরো প্রশাসনেই একধরণের আতংক বিরাজ করে সবসময়।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন