অযথা পুলিশি হয়রানি বন্ধে রাইড শেয়ারিং চালকদের কর্মবিরতি

0
589
অযথা পুলিশি হয়রানি বন্ধে মঙ্গলবার রাইড শেয়ারিং চালকদের কর্মবিরতি

অযাচিত পুলিশি হয়রানি বন্ধে ছয় দফা দাবিতে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কর্মবিরতির ডাক দিয়েছে অ্যাপভিত্তিক ড্রাইভারদের গ্রুপ রাইডশেয়ারিং ড্রাইভারস ইউনিয়ন (ডিআরডিইউ)।

বাড্ডায় একজন চালকের নিজের মোটরসাইকেলে আগুন দেওয়ার সাম্প্রতিক ঘটনা উল্লেখ করে বেলাল আহমেদ বলেন, ‘বাড্ডার ঘটনাটি অত্যন্ত মর্মান্তিক। হয়রানির জন্য একজন চালক তার মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন। এ ধরনের ঘটনাও যদি পুলিশকে নাড়া না দেয়, তাহলে কি আত্মহুতি দিলে তাদের বিবেক নাড়া দেবে?’

তিনি বলেন, ‘গাড়ি কোথাও ব্রেক করলে সেখানেই ধরে ফেলে ট্রাফিক পুলিশ। সরকার আমাদের জায়গা নির্ধারণ করে দিক। তাহলে আমরা যত্রতত্র দাঁড়াব না। আমাদের শহর অনুযায়ী যতটুকু জায়গা দেওয়া যায়, ততটুকু দেওয়া হোক। যদি ১০টা স্পট দেওয়া হয়, আমরা সেই ১০টাতেই দাঁড়াব।

‘সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ে আমরা কয়েক দফা আমাদের সমস্যার কথা জানিয়েছি, কিন্তু কোনো প্রতিষ্ঠান আমাদের অভিযোগ গ্রহণ করেনি। আমরা ষষ্ঠবারের মতো আন্দোলনে যাচ্ছি।

বিক্ষোভকারীদের ছয় দফা দাবির মধ্যে রয়েছে রাইড শেয়ারিং কর্মীদের স্বীকৃতি এবং সব ধরনের রাইডে ১০ শতাংশ কমিশন নির্ধারণ।

রাইড শেয়ারিং সার্ভিসের ড্রাইভাররা সব ধরনের পুলিশি হয়রানির অবসান দাবি করেন এবং কর্তৃপক্ষকে ভুয়া অভিযোগ বা অজুহাতে চালকদের বেকার বসিয়ে রাখা থেকে বিরত থাকতে বলে।

বিক্ষোভকারীরা ঢাকা ও সিলেটে রাইড শেয়ারিং যানবাহনের জন্য নির্দিষ্ট পার্কিং স্পেস এবং সমস্ত নিবন্ধিত রাইড শেয়ারিং যানবাহনে অগ্রিম আয়কর (এআইটি) বাতিল করার দাবি জানিয়েছেন।

এছাড়াও গতবছর গ্রহণ করা সব এআইটি এনলিস্টকৃত যানবাহন মালিকদের ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানান তারা।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন