মালিতে আল-কায়েদার হামলা বৃদ্ধি : মিশরীয় সেনাদের পলায়নের সিদ্ধান্ত

ত্বহা আলী আদনান

0
526

এই বছর মালিতে আল-কায়েদার হামলায় বিপুল সংখ্যক সৈন্য হারিয়েছে সিসির মিশর। একের পর এক সেনা হারানোর পর দেশটি মালি থেকে সামরিক উপস্থিতি স্থগিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

মালিতে ক্রুসেডার জাতিসংঘের বহুমাত্রিক সামরিক মিশনের (MINUSMA) অধীনে দীর্ঘদিন ধরে সামরিক কার্যক্রম চালিয়ে আসছে গাদ্দার সিসির নেতৃত্বাধীন মিশর। কিন্তু ২০২২ সালের শুরু থেকেই দেশটির সামরিক বাহিনীকে টার্গেট করে একের পর এক সফল অভিযান চালিয়ে তাদের সামরিক বাহিনীর মনোবল ভেঙে দিয়েছে আল-কায়েদা সংশ্লিষ্ট ইসলামি প্রতিরোধ যোদ্ধারা। আর এসব অভিযানে বহু সংখ্যক মিশরীয় সৈন্য নিহত এবং আরও অনেক সৈন্য আহত হয়।

ফলশ্রুতিতে গাদ্দার মিশরীয় কর্তৃপক্ষ গত ১১ জুলাই MINUSMA এর কাছে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছিল যে, তারা মালিতে মিশরের সামরিক উপস্থিতি বন্ধ করতে চায়। এনিয়ে জাতিসংঘের সাথে দীর্ঘ আলোচনা করে মিশর।

এই পক্রিয়ায় MINUSMA একটি বিবৃতি জারি করেছে। যেখানে বলা হয়েছে, “আমাদের জানানো হয়েছে যে, মিশরীয় সামরিক ইউনিট ১৫ আগস্ট থেকে মালিতে তার কার্যক্রম স্থগিত করবে।”

বিষয়টিকে একটি সুখবর এবং উম্মাহর জন্য ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন ইসলামি বিশ্লেষকগণ। আর তাঁরা এই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন যে, এভাবেই বাদবাকি শত্রু দেশগুলোও আস্তে আস্তে তাদের সৈনিকদেরকে মালি সহ গোটা পশ্চিম আফ্রিকা থেকে প্রত্তাহার করে নিবে, ইনশাআল্লাহ।

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন