আশ-শাবাবাকে রুখতে কেনিয়ান সেনাদের প্রশিক্ষণ ও সজ্জিত করছে সন্ত্রাসী যুক্তরাষ্ট্র

ত্বহা আলী আদনান

4
845

সোমালিয়া ও কেনিয়ার আশেপাশে দুর্বার গতিতে চলছে আশ-শাবাবের বিজয় অভিযান। মুজাহিদদের এই বিজয় যাত্রা রুখতে উঠে পড়ে লেগেছে অমুসলিম বিশ্ব।

সেই লক্ষ্যেই কিছুদিন পূর্বে ক্রুসেডার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আশ-শাবাবের বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নিতে কেনিয়াতে সৈন্য পাঠিয়েছে। সম্প্রতি দেশটিতে ক্রুসেডার বাহিনীর সামরিক তৎপরতা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে মনে হচ্ছে। কেননা সেখানে কেনিয়ান সেনাদের প্রশিক্ষণ ও সামরিকভাবে সজ্জিত করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

২০২১ সালে কংগ্রেসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পাঠানো একটি চিঠিতে বলা হয়েছে যে, আল-শাবাবের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কেনিয়ার সেনাবাহিনীকে সমর্থন দিবে পেন্টাগন। এই লক্ষ্যে পেন্টাগনের বিশেষ অ্যাকশন ইউনিট কেনিয়ান ক্রুসেডার বাহিনীর সাথে যৌথ সামরিক মহড়া শুরু করেছে।

তাদের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর স্পেশাল অপারেশন কমান্ডোরাও যোগ দিয়েছে। ইউএস মেরিনরা বর্তমানে কেনিয়ার ইসিওলো শহরে কেনিয়ান সেনা বাহিনীর সাথে যৌথ সামরিক প্রশিক্ষণ অনুশীলন করছে। যার কিছু ছবিও প্রকাশ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

উল্লেখ্য যে, বৈশ্বিক ইসলামি প্রতিরোধ বাহিনী আল-কায়েদার পূর্ব আফ্রিকা ভিত্তিক জনপ্রিয় শাখা হারাকাতুশ শাবাব আল-মুজাহিদিন প্রধানত উত্তর কেনিয়ায় সবচাইতে বেশি সক্রিয়।

গত বছর কেনিয়ার একজন গভর্নর জানান যে, আশ-শাবাব কেনিয়ার উত্তরাঞ্চলের অর্ধেকেরও বেশি অঞ্চল নিয়ন্ত্রণ করছে। দলটি বিশেষ করে কেনিয়ার লামু, গারিসা, ওয়াজির এবং মান্দেরা অঞ্চলে সক্রিয়। যার সিংহভাগ অঞ্চলই পুরোপুরিভাবে নিয়ন্ত্রণ করছে আশ-শাবাব।

4 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন