আফগানে শরিয়া শাসন: কাস্টমস রাজস্ব আদায়ে রেকর্ড!

সাইফুল ইসলাম

0
1564

আফগানিস্তান কাস্টমস বিভাগের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো এক অর্থ বছরে ১০০ বিলিয়ন আফগানি মুদ্রা বা ১১২ কোটি ডলারেরও বেশি রাজস্ব আদায় হয়েছে, তাও আবার মাত্র ১১ মাসেই। তালিবান সরকারের অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এক বিবৃতিতে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

ইসলামি ইমারতের শাসনের আগে, দেশটির বাৎসরিক কাস্টমস রাজস্বের পরিমাণ কখনোই ৭২ বিলিয়ন আফগানি বা ৮০.৬ কোটি ডলারের চেয়ে বেশি আদায় হয়নি। অথচ, এবার দখলদার আমেরিকাকে পরাজিত করে ক্ষমতায় আসার পর তালিবান সরকার জরুরি খাদ্য পণ্যে ৬৭% রাজস্ব কর কমিয়ে দিয়েছে। তারপরও চলতি অর্থবছর শেষ হওয়ার এক মাস বাকি থাকতেই কাস্টমস বিভাগ ১০০ বিলিয়ন আফগানি রাজস্ব আদায়ের মাইলফলক অতিক্রম করতে সক্ষম হয়েছে।

ইসলামি ইমারত কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, পেশাদার ও প্রতিশ্রুতিবদ্ধ সদস্যদেরকে কাস্টমস বিভাগে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। তাই দুর্নীতি নেমে এসেছে শূন্যের কোঠায়। আর কাজে এখন পূর্ণ স্বচ্ছতা রয়েছে।

এছাড়াও, এখন বাণিজ্যিক পণ্যের দ্রুত পরিবহনের জন্য আফগানিস্তানের কাস্টমস অফিস ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ১৬ ঘণ্টাই কাজ করে থাকে। পাশাপাশি, ব্যবসায়ীদের জন্য সমস্যা সৃষ্টিকারী বা দুর্নীতির ক্ষেত্র প্রস্তুতকারী বিষয়গুলো সমূলে উৎপাটন করা হয়েছে।

অর্থ মন্ত্রণালয়, বিশেষভাবে কাস্টমসের জেনারেল ডিরেক্টর দেশটির কাস্টমস বিভাগের আধুনিকায়ন করেছেন এবং ব্যবসায়ীদের জন্য জরুরি সব সুযোগ-সুবিধা সৃষ্টি করছেন। এর মাধ্যমে আশা করা যায় জাতীয় কাস্টমস রাজস্ব আরও বাড়বে এবং স্বচ্ছতার সাথে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে এই রাজস্ব পাঠানো সম্ভব হবে।

এভাবে আফগানিস্তানের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির লক্ষ্যে সকল দিকেই কাজ করে যাচ্ছেন ইসলামি ইমারত কর্তৃপক্ষ। চলতি অর্থবছরে ১১টি বড় প্রজেক্ট হাতে নিয়েছেন তাঁরা। এগুলো দেশের সমৃদ্ধিতে বড় অবদান রাখবে বলে আশা করা যায় ইনশাআল্লাহ।



তথ্যসূত্র:
——–
1. Current Year’s Custom Revenues Surpasses 100 Billion AFN
https://tinyurl.com/9u9m7h3y

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধ‘কাবা’ সদৃশ নতুন স্থাপনা: কী চায় মুহাম্মাদ বিন সালমান?
পরবর্তী নিবন্ধভালোবাসা দিবস আমাদের যা দিয়েছে