আগ্রায় বাড়িতে ঢুকে মুসলিম যুবতীকে শ্লীলতাহানি

0
400

ভারতের উত্তর প্রদেশে এক মুসলিম বাড়িতে ঢুকে এক যুবতীকে শ্লীলতাহানী করেছে হিন্দুরা। এ ঘৃণ্য কাজে বাধা দেওয়ায় ঐ যুবতীর ভাই ও আত্মীয়দের পিটিয়ে আহত করেছে আগ্রাসী হিন্দুরা।

স্থানীয় সূত্র মতে, গত ৪ জুন সন্ধ্যায়, ট্রান্স যমুনা থানার আওতাধীন একটি হিন্দু প্রধান এলাকায় চার হিন্দু যুবক জোরপূর্বক একটি মুসলিম বাড়িতে প্রবেশ করে। এরপর সে বাড়িতে ভাংচুর ও ১৮ বছর বয়সী এক মুসলিম যুবতীকে শ্লীলতাহানি করে।

আক্রমণকারী হিন্দুদেরকে বাধা দেওয়ায় ঐ মুসলিম পরিবারের অন্য সদস্যদের উপরও আক্রমণ চালিয়েছে তারা। ঘটনার পর দিন সোশ্যাল মিডিয়ায় ঐ হামলার একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। ভিডিওতে দেখা যায় হামলাকারীরা লাঠি নিয়ে বাড়িতে ঢুকে পড়ে এবং বাড়িতে রাখা একটি মোটর সাইকেল লাথি দিয়ে ফেলে দেয়।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাড়ির মালিক জানান, দুষ্কৃতিকারিরা বিশেষভাবে তার যুবতী মেয়েকে টার্গেট করেছিল। ওরা মেয়েটির উপর হামলে পড়ে এবং তার জামা-কাপড় ছিঁড়ে ফেলে। এসময় বাধা দেওয়ায় বিশাল কুমার, সঞ্জয় কুমার, শীলু এবং ছোটু নামে চার হিন্দু বাড়ির অন্যান্যদের উপরও আক্রমণ চালায়। সেসময় আরও কয়েকজন হিন্দু বাড়ির বাইরে অবস্থান করছিল বলে জানান ঐ বাড়ির মালিক।

টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে তিনি আরও জানিয়েছেন, ‘হামলাকারীদের বয়স ২০ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে হবে। তারা আমাদের বাড়ি ভাংচুর করে এবং আমাদের বাড়িতে পাথর ছুঁড়ে মারে। আমার মেয়ের মাথায় ইট দিয়ে আঘাত করায় সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। আমার দুই ছেলেও আহত হয়েছে। আমাদের যানবাহন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’

মেয়েটির ভাই বলেন, ‘আমাদের বাড়ির বাইরে প্রতিবেশীরা জড়ো হলে হামলাকারীরা চলে যাবার আগে আমাদের হুমকি দিয়ে যায়। ৩০ মিনিটেরও বেশি সময় ধরে আমাদের উপর তাদের আক্রমণ চলে। আমাদের উদ্ধারে কেউ এগিয়ে আসেনি। এলাকার একমাত্র মুসলিম পরিবার হওয়ার কারণে আমাদের টার্গেট করা হয়েছিল।’

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার সুরাজ কুমার রায় বলেছে, ‘চার অভিযুক্তের বিরুদ্ধে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলমান আছে। পলাতক অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে।’

তথ্যসূত্র:
——-
1.Muslim Family in Agra Targeted, Girl Sexually Assaulted as Four Men Attack Their Home
https://tinyurl.com/mr299z59

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন