রাফাহতে ইসরায়েলি হামলায় জাতিসংঘের কর্মী নিহত

0
63
রাফাহতে ইসরায়েলি হামলায় জাতিসংঘের কর্মী নিহত

গাজার রাফায় একটি গাড়িতে বিমান হামলায় জাতিসংঘের এক বিদেশি কর্মী নিহত হয়েছেন। সোমবার এ ঘটনায় আরেকজন আহত হন। জাতিসংঘের এ দুই কর্মী দক্ষিণ গাজার ইউরোপীয় হাসপাতাল পরিদর্শনে গিয়েছিলেন। নিহত ওই কর্মী জাতিসংঘের সুরক্ষা ও নিরাপত্তা বিভাগে কাজ করতেন।

এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলো। হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, ত্রাণকর্মীদের অবস্থান জেনেই হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল।

মঙ্গলবার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত বিবৃতিতে হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলছে, ইসরায়েলের বাহিনী গত অক্টোবর থেকে এ পর্যন্ত গাজা উপত্যকায় মানবিক সহায়তা কাজে অংশ নেওয়া ত্রাণকর্মীদের বহর ও ভবনের ওপর অন্তত আটবার হামলা করেছে। এসব হামলার আগে ত্রাণ সংস্থাগুলোকে ইসরায়েলের কর্তৃপক্ষ কোনো সতর্কতা দেয় না। এসব ঘটনায় দুই শিশুসহ অন্তত ১৫ জন নিহত ও ১৬ জন আহত হয়েছে।

নিউইয়র্ক টাইমসের সাম্প্রতিক তদন্তে উঠে এসেছে, এ আট হামলার মধ্যে পাঁচটির ক্ষেত্রে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ ছিল ত্রাণকর্মীদের।

জাতিসংঘের তথ্য অনুযায়ী, গত বছরের ৭ অক্টোবর গাজায় যুদ্ধ শুরুর পর এ পর্যন্ত জাতিসংঘের ১৮৮ কর্মী নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে গত ১ এপ্রিল ওয়ার্ল্ড সেন্ট্রাল কিচেনের সাত কর্মী নিহত হন। তাদের মধ্যে তিনজনই যুক্তরাজ্যের নাগরিক।

এ অবস্থায় মার্কিন প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ে ক্ষোভ বাড়ছে। গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মার্কিন বিমানবাহিনীর সদস্য অ্যারন বুশনেল গাজায় গণহত্যার বিরুদ্ধে ওয়াশিংটনে ইসরায়েলের দূতাবাসের সামনে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মাহুতি দেন। এবার যুক্তরাষ্ট্রের এক সেনা কর্মকর্তা আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করলেন। মেজর হ্যারসন ম্যান নামের ওই কর্মকর্তা যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা গোয়েন্দা বিভাগ বা ডিআইএ থেকে পদত্যাগ করেছেন। তিনি মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্রের নিঃশর্ত সমর্থনের কারণে হাজার হাজার ফিলিস্তিনিকে হত্যা ও অনাহারে রাখতে পারছে ইসরায়েল।

এ পরিস্থিতিতে গাজায় মৃতের সংখ্যা ৩৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। একদিনে শিশুসহ আরও ১৪ জনের প্রাণহানি হয়েছে। আহত হয়েছেন ৭০ হাজারেরও বেশি। হতাহতদের অধিকাংশই নারী ও শিশু।

তথ্যসূত্র:
1. Israel-Gaza war: UN says Indian staff member killed in Gaza
– https://tinyurl.com/4p2mbzcc

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন

পূর্ববর্তী নিবন্ধদুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতি কমাতে ইমারতে ইসলামিয়া সরকারের নানামুখী উদ্যোগ
পরবর্তী নিবন্ধদুর্যোগের প্রভাব কমাতে ইমারতে ইসলামিয়া সরকারের নানামুখী উদ্যোগ