হাটহাজারীর ছাত্র-আন্দোলন : ছাত্রদের সব দাবি মেনে নিয়েছেন মাদরাসার শূরা কমিটি

1
847
হাটহাজারীর ছাত্র-আন্দোলন : ছাত্রদের সব দাবি মেনে নিয়েছেন মাদরাসার শূরা কমিটি

দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদরাসায় দুর্নীতিবাজ ও দালালদের বিরুদ্ধে ছাত্র-আন্দোলনের দুই দিনের মাথাতেই ছাত্রদের সকল দাবি মেনে নেওয়া হলো। মাদরাসাটির শূরা সদস্যদের জরুরি বৈঠক শেষে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

দীর্ঘদিন ধরে কওমী অঙ্গনে আল্লামা শাহ আহমদ শফী দা.বা. এর ছেলে মাওলানা আনাস ও তার কিছু সহযোগীদের নিয়ে গঠিত সিন্ডিকেটের দৌরাত্ম পরিলক্ষিত হচ্ছিল। এই সিন্ডিকেটের বেশকিছু অপকর্ম প্রকাশ্যে আসলে কওমী ছাত্রদের মাঝে তাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সেই থেকে দেশের প্রধানতম দ্বীনি শিক্ষাঙ্গন কওমী মাদরাসাগুলোকে এসকল দুর্নীতিবাজ দালালগোষ্ঠীর হাত থেকে রক্ষার উদ্দেশ্যে সচেতন উলামা-তলাবাগণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে লেখালেখি করে আসছেন। অনলাইনের মাধ্যমে জানানো এই প্রতিবাদ সর্বশেষ হাটহাজারী মাদরাসায় ছাত্র-আন্দোলনের মাধ্যমে দালালগোষ্ঠীর উৎখাতের পর একটা নতুন মাত্রা পেলো।

মাদরাসার ছাত্রদের আন্দোলনে সাড়া দিয়ে মাদরাসার শূরা কমিটির কয়েকজন সদস্য প্রাথমিকভাবে বুধবার এবং পরবর্তীতে ‍বৃহস্পতিবার জরুরি বৈঠকে বসেন। বুধবারের বৈঠকে মাওলানা আনাস মাদানীকে বহিষ্কার এবং ছাত্রদেরকে কোনোভাবেই হয়রানি না করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পাশাপাশি শনিবারে পূর্নাঙ্গ শূরা বসার কথা জানানো হয়। কিন্তু, বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে মাদরাসা বন্ধ করে দিয়ে আন্দোলনকে দমিয়ে দেওয়ার আভাস পেয়ে ছাত্ররা ঐদিনই শূরা বৈঠকের আহ্বান জানান। ছাত্রদের আহ্বানে সাড়া দিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে শূরা সদস্যগণ বৈঠকে বসেন। দীর্ঘক্ষণ বৈঠক শেষে বুধবারের গৃহীত সিদ্ধান্তসহ ছাত্রদের সকল দাবি মেনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত দেন তাঁরা। সিদ্ধান্তগুলো হলো-

১. মাওলানা আনাস মাদানীকে মাদরাসা থেকে বহিষ্কার।

২. ছাত্রদেরকে কোনোভাবে হয়রানী করা যাবে না।

৩. আল্লামা আহমদ শফী দা.বা. মুহতামিমের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেছেন। মাদরাসার মজলিসে শূরার পরামর্শে তাঁকে সদরে মুহতামিম বা উপদেষ্টা পদে রাখা হয়েছে।

৪. মাদরাসা পরিচালনার দায়িত্ব এখন শূরা কমিটির হাতে ন্যস্ত করা হয়েছে।

৫. মাদরাসার আরেকজন শিক্ষক নুরুল ইসলাম কক্সবাজারীকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শূরা কমিটির এই সিদ্ধান্তে আনন্দিত হয়েছেন মাদরাসার শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি মেনে নেওয়া হয়েছে বলে আন্দোলনকে সমাপ্ত ঘোষণা করেছেন তারা।

এদিকে ছাত্রদের এই দুর্নীতিবিরোধী ন্যায্য আন্দোলনকে নেতৃত্বের দ্বন্দ্ব বলে অপপ্রচার করছে ইসলামবিদ্বেষী পত্রিকা বিবিসি বাংলাসহ অন্যান্য হলুদ মিডিয়াগুলো। কথিত বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতার নামে তারা সবসময় কৌশলে মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে সত্যের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে। তাদের এমন নিকৃষ্ট অপপ্রচারের ব্যাপারে ছাত্ররা নিন্দা জানিয়েছেন।

১টি মন্তব্য

  1. চট্টগ্রামের হাটহাজারীর আল জামেয়াতুল আহলিয়া দারুল উলুম,মুঈনুল ইসলাম মাদ্রাসার সাবেক মুহতামিম শাইখুল হাদীস আল্লামা শাহ আহমদ শফী সা, রহ, ইন্তেকাল করেছেন৷সন্ধ্যা 6:00 র দিকে৷ ইন্নালিল্লাহি ও ইন্না ইলাইহি রজিউন৷ আমরা সকলে হযরতের জন্য দোয়া করব,যেন মহান রব্বে কারীম জান্নাতে তাঁর মাকাম সুউচ্চ করেন,এবং তাঁকে ক্ষমা করে দেন৷

    এবং উম্মাহর চলমান সংকট যেন মহান আল্লাহ উত্তম ভাবে সমাধান করে দেন৷আল্লাহ আমাদের সঠিক পথে পরিচালিত করুন৷ আমিন,,,,,,,,,,

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন