আফগানে বিদেশী কোনো সৈন্যকেই সহ্য করা হবেনা, হোক সেটা আমেরিকা বা তুরস্ক- তালিবান

4
884
আফগানে বিদেশী কোনো সৈন্যকেই সহ্য করা হবেনা, হোক সেটা আমেরিকা বা তুরস্ক- তালিবান

আফগানের ভূমি হতে বিদেশী সেনা প্রত্যাহারের পর দেশটিতে সেনা মোতায়েন করতে চায় সেক্যূলার তুরষ্ক। প্রতিউত্তরে তালিবান বলছে, বিদেশী কোনো সৈন্যকেই এখানে ছাড় দেওয়া হবেনা, হোক সেটা আমেরিকা বা তুরস্ক।

ক্রুসেডার আমেরিকা ও ন্যাটো জোটের অংশীদার দখলদার তুরস্ক চাচ্ছে, আফগানিস্তান থেকে বিদেশী সেনারা চলে যাওয়ার পরেও এখানে তুর্কি সেনারা অবস্থান করবে। অপরদিকে আফগানিস্তানে তুর্কি সেনা মোতায়েন কিংবা সেনাদের থেকে যাওয়ার বিষয়ে হুশিয়ারী বার্তা দিয়েছে তালেবান। তাঁরা এ ব্যাপারে বলেছেন, তুরস্ক যদি সেনা মোতায়েন রাখার সিদ্ধান্ত নেয়, তাহলে মুজাহিদীনরা তাদের সাথে সেরকম আচরণই করবেন যেমনটা করা হয়েছে অন্যান্য বিদেশী দখলদার শক্তির সাথে।

উল্লেখ্য, সেক্যূলার তুরস্ক আফগানিস্তানে বর্তমানে ন্যাটো মিশনের আওতায় আফগানের মুরতাদ কাবুল সেনাদের প্রশিক্ষণ দিতে পাঁচশতাধিক (৫০০এর বেশি) সেনা সদস্য মোতায়েন করে রেখেছে।

তালেবান মুখপাত্র মুহতারাম জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ (হাফিযাহুল্লাহ) বলেছেন, “আমরা কোনো দেশের সৈন্যকেই আফগানে সহ্য করব না, হোক সেটা আমেরিকা বা তুরস্ক”।

তিনি বলেন, “যদি তুরস্কের এমন কোনো ইচ্ছা থাকে, ইমারতে ইসলাম আফগানিস্তান তার তীব্র বিরোধিতা করবে, আমরা কোনো ক্রমেই আফগানে কোনো বিনদেশী সামরিক বাহীনিকে সহ্য করব না।”

তিনি আরো বলেন, “বিদেশী সৈন্য যে দেশেরই হোক তাদের উপস্থিতি কোনোভাবেই কাম্য নয়। তুরস্ক ন্যাটো জোটের সদস্য এবং তারা আফগানে বিগত ২০ বছর যাবত অবস্থান করছে। তারা এই যুদ্ধের সাথে জড়িত ছিল এবং এতে সক্রিয়ভাবে অংশ নিয়েছে। তাদের সেনা মোতায়েন রাখার সিদ্ধান্ত একটি ভুল সিদ্ধান্ত এবং এই ভুল তাদের করা উচিত নয়। যদি তারা মোতায়েন রাখে, আফগানরা নির্দ্বিধায় তাদের সাথে সেরূপ আচরণই করবে যা অন্য দখলদার শক্তিগুলোর সাথে করা হয়েছে।”

এদিকে সেক্যূলার রাষ্ট্র তুরস্কের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হুলুসি আকরার সোমবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তুর্কি সেনারা ৩ শর্তে আফগানিস্তানের হামিদ কারযাই এয়ারপোর্টে থাকবে। কি সেই শর্তসমূহ, এর জবাবে সে জানায় – শর্তগুলো হচ্ছে রাজনৈতিক, আর্থিক এবং লজিস্টিক সাপোর্ট।

4 মন্তব্যসমূহ

  1. হায়রে অভাগা!এই হলো তুরস্কের চেহারা।
    এরপরও এই দেশের অনেক অবুঝ মুসলমান তুরস্কের প্রেসিডেনট এর প্রতি অন্ধ সাপোর্ট দিয়ে আসছে।
    অনেকের কাছে তো তুর্কি প্রেসিডেনট বর্তমান জামানার খলিফা।
    কবে যে এদের চোখ খুলবে!!!
    😳😳😳😳😳😳😳😳😳😳

  2. قل للذين كفروا إن ينتهوا يغفر لهم ما قد سلف، {وإن يعودوا فقد مضت سنة الأولين} وقاتلواهم حتى لا تكون فتنة ويكون الدين كله لله فإن انتهوا فإن الله بما يعملون بصير

    সংক্ষিপ্ত জিহাদ পরিচিতি
    https://justpaste.it/3nset

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন