“পারমাণবিক অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলেও আমরা কখনই শরিয়া শাসন ত্যাগ করবো না”

ত্বহা আলী আদনান

4
1671

সম্প্রতি ইমারতে ইসলামিয়া আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে অনুষ্ঠিত হয় তিনদিন ব্যাপী ঐতিহাসিক উলামা সম্মেলন। উক্ত সম্মেলনে বিগত ২১ বছরের দীর্ঘ জিহাদি ইতিহাসের সাথে সম্পর্কিত বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন আমিরুল মুমিনিন মোল্লা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা (হাফিজাহুল্লাহ্)।

গত ২০২১ সালের আগস্টে ইমারাতে ইসলামিয়া প্রশাসন আফগানিস্তানের ক্ষমতা গ্রহণের পর এটিই ছিলো প্রথম বড় কোন সম্মেলন। যা প্রায় সাড়ে চার হাজার আলেম ও স্থানীয় পণ্ডিতদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত হয়। যদিও এর আগেও ছোট ছোট আরও কিছু উলামা সম্মেলন করেছেন শাইখ হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা (হাফিজাহুল্লাহ্)।

তিন দিনব্যাপী এই বৈঠক শেষে গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে ইমারাতে ইসলামিয়া আফগানিস্তান। সেই সাথে ১৫টি বিষয়ে ঐক্যমতে পৌঁছানোর পর যৌথ বিবৃতি জারি করা হয়।

ঐদিন ইমারাতে ইসলামিয়া আফগানিস্তানের আমীর, মৌলভী হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা সম্মেলনের মঞ্চ থেকে দেশবাসীর উদ্দেশ্যে একটি দীর্ঘ বক্তৃতা পেশ করেন। এসময় তিনি পশ্চিমা বিশ্ব থেকে ইমারাতে ইসলামিয়ার সরকারকে চাপ দেওয়ার প্রচেষ্টার তীব্র নিন্দা জানান। এবং বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পারমাণবিক অস্ত্র দিয়েও যদি আমাদের আঘাত করে, তারপরেও আমরা কখনই শরিয়া শাসন ত্যাগ করবো না। কেননা আমরা এক আল্লাহর গোলাম। তিনিই হুকুমদাতা ও সৃষ্টিকারী। আমরা এমন কোনো কাজ করতে পারি না যা আল্লাহকে অসন্তুষ্ট করে। আল্লাহর সাথে আমাদের সম্পর্ক দাসত্বের। আর আমরা এমন কিছু গ্রহণ করবোও না, যা আমাদের প্রভুকে রাগান্বিত করে।

আল্লাহর কসম! যদি পশ্চিমারা তাদের সমস্ত পারমাণবিক শক্তি নিয়েও আসে, তথাপি আমরা এই সিদ্ধান্ত থেকে এক বিন্দুও টলবো না।

আমরা মুসলিম এবং একটি স্বাধীন জাতি! বিশ্বের উচিত, আমাদের উপর তার আদেশ ও সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দেওয়ার চিন্তাভাবনা না করা। কারণ আমাদের ব্যক্তিগত বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার আপনারা কেউ নন।

4 মন্তব্যসমূহ

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন