আবারও হালাল বিয়েতে দালাল প্রশাসনের বাঁধা

ইউসুফ আল-হাসান

0
535

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারী উপজেলায় ১৮ বছরের কম বয়সী মেয়েকে বিয়ে করায় বর এবং তার এক আত্মিয়কে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত ২৬ অক্টোবর রাতে উপজেলার পাইকেরছড়া ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

বিবরণ অনুযায়ী, বিয়ের খবর শুনে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উগ্র হিন্দু দীপক কুমার দেব শর্মা রাত ৯টায় পুলিশকে নিয়ে সেখানে অভিযান পরিচালনা করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছার আগেই শরিয়াহ মোতাবেক বিয়ে সম্পন্ন হয়ে যায়। এরপরও মালাউন দীপক কুমার তাদের নানভাবে হয়রানি করে। বর ইসমাঈল হোসেন ও তার এক আত্মীয়কে ছয় মাসের কারাদণ্ড প্রদান করে।

দেশে প্রতিনিয়ত ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে। স্কুল-কলেজসহ গোটা দেশেই বেহায়াপনা আজ সয়লাব। ধর্ষণ, গণ ধর্ষণ, স্বামীকে বেঁধে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ, মায়ের সামনে মেয়েকে ধর্ষণ – এধরনের হিংস্র অপরাধ করেও অনেক ক্ষেত্রেই অপরাধীদের শাস্তি হচ্ছেনা।

হিন্দুত্ববাদের দালাল প্রশাসন এ ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নেয় না। কিন্তু ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক পবিত্র বিয়েতে বারবারই নগ্ন হস্তক্ষেপ করছে তারা। সেক্যুলার ও ইসলাম বিদ্বেষী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে মুসলিমরা প্রতিবাদ করলেই দালাল প্রশাসন বাকস্বাধীনতার বুলি আওড়ায়। অথচ ইসলামের বিরুদ্ধে আরোপ করা হচ্ছে শত বিধিনিষেধ।

তথ্যসূত্র:
——
১। বাল্যবিয়ে করতে গিয়ে নানা-নাতির জেল-
https://tinyurl.com/3nh7cn2b

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন