শীতে কাহিল জনজীবন, বাড়ছে রোগের প্রকোপ

0
583
শীতে কাহিল জনজীবন, বাড়ছে রোগের প্রকোপ

কনকনে শীত আর ঘন কুয়াশায় কাহিল জনজীবন। একইসঙ্গে বাড়ছে শীতকালীন রোগের প্রকোপ। এরমধ্যে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্ট রোগীর সংখ্যাই বেশি। বৃহস্পতিবার নীলফামারীতে সর্বনিম্ন ৭.৮ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আধুনিক সদর হাসপাতালে এখনো শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন আড়াই’শ জন। এদিকে শীতের তীব্রতায় জনজীবন নাকাল হয়ে পড়ায় খেটে খাওয়া দিনমজুরেরা পড়েছেন বেকায়দায়। জেলা শহরের মিলনপল্লী এলাকার রিকশাচালক বুলবুল হোসেন জানান, গেল কয়েক দিনের ঠাণ্ডার প্রকোপে আয় কমে গেছে।

ঘন কুয়াশার কারণে মানুষজন ঘর থেকে বের হচ্ছেন না।

নীলফামারী আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা রুহুল আমিন জানান, শীতের প্রকোপে ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, ও শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন বিভিন্ন বয়সের নারী-পুরুষ ও শিশুরা। বিশেষ করে ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট রোগীর সংখ্যাই বেশি।

তবে বৃহস্পতিবার রোগীর সংখ্যা কমেছে। এদিন হাসপাতালে আড়াই’শ জন ভর্তি ছিলেন শীতজনিত রোগে আক্রান্ত হয়ে।

ডিমলা আবহাওয়া অফিসের পর্যবেক্ষক বাবুল হোসেন জানান, এদিন সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শীত মোকাবেলায় সাধারণ মানুষরা ভীড় করছেন খোলা বাজারের দোকানগুলোতে। সেখানে তুলনামূলক কম দামে প্রয়োজনীয় পোশাক পাওয়ায় সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভীড় করে থাকেন তারা।

সুত্রঃ বিডি প্রতিদিন

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন