ব্যাংক থেকে দেদারসে ঋণ নিচ্ছে সরকার, লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে আগেই

0
390

ব্যাংক খাত থেকে ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা আগেই ছাড়িয়েছে সরকার। তবে পুনঃনির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা থেকে এখনও অনেক উপরে। ব্যাংক থেকে পুরো অর্থবছরের ঋণ মাত্র ছয় মাসেই নিয়েছে সরকার। বাংলাদেশ ব্যাংকের তথ্যমতে, মার্চ মাসের প্রথম ১৮ দিন শেষে ব্যাংক খাত থেকে সরকার ঋণ নিয়েছে ৪৭ হাজার ৭৭০ কোটি টাকা। তবে ভবিষ্যতে এর পরিমাণ আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে মত সংশ্লিষ্টদের। খবর-অর্থসূচক

চলতি অর্থবছরে (২০১৯-২০) ব্যাংক খাত থেকে ৪৭ হাজার ৩৬৪ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার লক্ষ্য ধরেছে সরকার। তবে ছয় মাস পার না হতেই সে লক্ষ্যমাত্রা অতিক্রম হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত ব্যাংক ব্যবস্থা থেকে সরকারের ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছিল ৫১ হাজার ৭৪১ কোটি টাকা। যা চলতি অর্থবছরের পুরো সময়ের লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও ৪ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা বেশি।

খাত সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাজস্ব আদায়ে ভাটা এবং সঞ্চয়পত্র বিক্রি কমে যাওয়ায় ব্যয় মেটাতে ব্যাংক ব্যবস্থার ওপর অধিক নির্ভরশীল হয়ে পড়েছে সরকার। ফলে অর্থবছরের সাড়ে ছয় মাস না যেতেই সরকারের ব্যাংকঋণ অর্ধলাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে।

তথ্যমতে, আলোচ্য সময়ে ব্যাংক থেকে সরকারের নেওয়া মোট ঋণের স্থিতির পরিমাণ এক লাখ ৬২ হাজার ২৪১ কোটি ৬০ লাখ টাকা। যা ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারির চেয়ে ৭৫ দশমিক ৫৫ শতাংশ বেশি। মুদ্রানীতিতে সরকারি খাতে ঋণের প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হয় ২৪ দশমিক ৩ শতাংশ। জানুয়ারিতে অবশ্য তা বাড়িয়ে ৫৬ শতাংশ করা হয়। কিন্তু সেটাও ছাড়িয়ে ৭৫ দশমিক ৫৫ শতাংশে উঠেছে। যা অর্থনীতির জন্য মোটেও সুখবর নয়। অন্যদিক ধারাবাহিকভাবে কমছে বিনিয়োগ বৃদ্ধির অন্যতম প্রধান নিয়ামক বেসরকারি খাতের ঋণের প্রবৃদ্ধি।

 

মন্তব্য করুন

দয়া করে আপনার মন্তব্য করুন!
দয়া করে এখানে আপনার নাম লিখুন